Saturday, November 30, 2013

"কপালে সুখ সহ্য হয় না"


কপালে সুখ সহ্য হয় না। কথাটা কারো কারো ক্ষেত্র একদিন ঠিক। বুঝতেই পারছেন, নিজের কথাই বলছি। হতে পারে, সুখে আছি বলেই ভুতে কিলাচ্ছে। তারপরও  এমন সব ঘটনা ঘটে যে, মনে মনে অবাক হতে হতেও হয়রান হয়ে গিয়েছি। উদাহরন দিচ্ছি,

ছেলের স্কুলে ফান ডে পারটি (শেষ ক্লাস)।
ইচ্ছে করেই শনিবারে রাখা হয়েছে যেন কোন ঝামেলা না হয়। ছেলে কে স্পাইডার ম্যান সাজাবো, নিজে কোন শাড়ি পড়ব, স্কুলে কি কি ভাবে সাজাচ্ছে, না জানি কি খাওয়াবে, আমরা নিজেরা (মায়েরা) কি খাবার অর্ডার দিব ইত্যাদি নানা আয়োজন। ঠিক আগের রাতে শুনলাম সব বাতিল (আপাতত:)।

আম্মা বাসায় আমার বড় বোন আর সেজ বোনকে আম্মা সব সময় খুব যত্ন করে খাওয়ায়। আমি কি খাই না খাই খেয়াল করার দরকার হয়না। ছোট বেলায় একদিন সকালে খেতে বসার পর আম্মা রুটি ভেজে সবার আগে আমার প্লেটে দিলেন, আমি খুব অবাক। আজ আমাকে নিজে আদর করে খাওয়াচ্ছেন! খেতে গিয়ে ভুল ভাংলো। রুটিটা আগের দিনের, তাই আমাকে আগে সেটাই দিচ্ছেন, যেন আমি আজকে গরম রুটি না ধরে এটা খাই। ভাল।

এমনই হয়। কোন কারনে যদি খুব খুশি হই, যখন মনের প্রতিটি অংশ খুশিতে নাচতে থাকে, আমি তখনই বুঝি, আমার এই আনন্দ ২৪ ঘন্টাও টিকবে না। যে-ই মনটাকে এই আনন্দ দিক না কেন, কেন যেন এরপর এমন একটা ব্যবহার করবে, যেন আমার মন পুরোপুরি ভেংগে যায়।

কি আর করা। মন থেকে যে ভালবাসা আসে না, তা জোর করে পাওয়ার আর চেষ্টা করিনা। এরচেয়ে শুন্য হয়েই থাকে, মাঝে মাঝে আনন্দের একটু ছিটা ফোটা যা পাই, তাই নিয়েই আনন্দ। মন্দ কি। মনে মনে বলি, সে আছে, থাকবে, বাস্তব যাই হোক না কেন।

Friday, November 29, 2013

Love human


I love flowers. Who doesn’t? Every year in Valentine’s Day, we see the use of flowers mostly in Bangladesh. Every year I see in different way how people are celebrating their valentine’s day. This year when I go out at the afternoon to the grocery shop I see petals of flowers are on road, here and there. I could assume how flowers were given and also drops some mark on the roads. I saw many teens, young people, garment factory workers are walking with flowers. Nice, really felt nice. When we see love flying in air, it really fulls your mind with joy. Long live love. Love the human and humanity. We really need you everywhere.

Thursday, November 28, 2013

মানুষ মানুষেরই জন্য (humans are for humanity)



Singer Name :BHUPEN HAJARIKA

(আজ এই গানটার কথা খুব মনে পড়ছে)

মানুষ মানুষেরই জন্য
জীবন জীবনেরই জন্য
একটু সহানুভূতি কি
মানুষ পেতে পারে না
ও বন্ধু।

মানুষ মানুষকে পন্য করে
মানুষ মানুষকে জীবিকা করে
পুরানো ইতিহাস ফিরে এলে
লজ্জা কি তুমি পাবে না
ও বন্ধু।

বলো কি তোমার ক্ষতি 
জীবনের অথৈ নদী 
পার হয় তোমাকে ধরে
দুর্বল মানুষ যদি

মানুষ যদি সে না হয় মানুষ
দানব কখনও হয়না মানুষ
সেই দানব কখনও বা হয় মানুষ
লজ্জা কি তুমি পাবে না
ও বন্ধু


manush manusher jonno
jibon jiboner jonno
ektu shohanubhuti ki
manush pete parena
o bondhu ||

manush manush ke ponno kore
manush manush ke jibika kore
purono itihash fire ele
lojja ki tumi pabena
o bondhu ||

bolo ki tomar khoti
jiboner othoi nodi
par hoy tomake dhore
durbol manush jodi |

manush jodi she na hoy na manush
danob kokhono hoyna manush
shei danob kokhono ba hoy manush 
lojja ki tumi pabena
o bondhu || 

Wednesday, November 27, 2013

আমার পুরস্কার বা উপহার (My gift or prizes)


গিফট বা পুরস্কার পেতে যে কি ভালো লাগে। ভাবছেন এই বয়সে একি ছেলে মানুষী। আরে বাবা, আমার যে খুব ভালো লাগে, তার কি হবে। বয়স তো নিজে নিজে বেড়েছে, আমি কি বাড়িয়েছি?

আমার আম্মা সব সময়ই আমাদের জন্মদিন সাধ্য মতো ঘটা করা পালন করেছেন। যেহেতু বছরের শুরুতে, বাসার সবার মধ্যে, আমার জন্মদিনটা আগে তাই সব চেয়ে আনন্দ আর হইচই আমার জন্মদিনেই হতো। এবং অবশ্যই উপহার পেতাম এবং এখনও পাই (অনেক সময় নিজেরই সবাইকে মনে করিয়ে দিতে হয়, যে সামনে আমার জন্মদিন যে যা পার সময় থাকতে কিনে নাও, পরে বলবে না যে মনে ছিল না)।
আমার ছেলের জানুয়ারীতে আসার কথা ছিল, সিজার করে বেচারাকে ডিসেম্বরেই দুনিয়ার মুখ দেখাতে হয়েছে। ফলে সবার আগে না হয়ে ওর জন্মদিন সবার শেষে।

আম্মা-আব্বা এই মামলায় একটু কিপটামি করেন। বছরে যখনই কিছু কিনে দেন, বলেন, এটাই তোমার জন্মদিনের উপহার, জন্মদিনে আর কিছু চাবে না। :( 

জন্মদিনের পর পুরস্কার পাওয়া শুরু করলাম স্কুলে থাকতে। একসময় এটা অভ্যাসে পরিনত হলো। যেন প্রতি বছর আমাকে বেশ কিছু পুরস্কার পেতে হবে এটাই নিয়ম। নিয়মের ব্যাতিক্রম ঘটলো ক্লাস ৫ থেকে। বড় স্কুলে আর তেমন পুরস্কার পেতাম না। তারপরও ক্লাস ১০ এ বিদায়ী ছাত্রী হিসাবে অনেক কিছু পেয়ে ছিলাম সবাই।

লটারীর পুরস্কার দেখলেই খুব লোভ হয়। তবে লোভে পড়েও কখনও কিনি নাই। কারন আমার লটারী ভাগ্যটা কেমন যেন। নিশ্চিত পুরস্কার না থাকলে ভাগ্যে কিছু জুটেনি।

 ছেলে হবার পর ছেলের মুখ দেখে অনেকে অনেক কিছু দিয়েছেন। কেউ কেউ আমার জন্য দিয়েছেন, খুবই ভাল লেগেছে।

এখন নিজেই নিজেকে মাঝে মাঝে পুরস্কার দেই, বড় কোন কাজ করার পর। কখনও বড় কোন সিদ্ধান্ত নেয়ার পর, কষ্ট হলেও যা আমি পালন করবো বলে ঠিক করি। ভালই লাগে নিজের দেয়া পুরস্কার নিতে। পুরস্কার আর উপহার সব সময়ই ভাল, সে যেখান থেকে, যখনই আসুক না কেন। 

Tuesday, November 26, 2013

Boys like winter for fashion

Shafeen liked the new  winter dress, he was 3 years old.

In Bangladesh, boys always like winter. This is the only time, when they can wear fashionable dresses, I mean as a winter dress. My son liked that too. Even in the class he tried to cover his head with the attached head cover. But class teacher didn't allow it. Sad for him J


Good for kid’s mom too. As in winter kids wear heavy dresses, and somehow they look little healthy. Which mother won’t like that?

Monday, November 25, 2013

Woman, you have to live like a second class citizen, otherwise you may leave


As a wife, in our country, you have to live like a second class citizen (in many cases you can use the term slave), otherwise you may leave. And if you leave, mostly the other woman (mainly married) will say you are the bad woman.

Let me give you an example, why I said like a second class citizen. Say your mother in law gave you two eggs with a packet of bread to make Toast (Bombay toast) for 7/8 people. After start making the food, you found, two eggs are not enough, so you went to the refrigerator and see 4 eggs available. You took another two and made all the bread toast. People liked your food, but suddenly you heard, your mother in law started screaming with his boys (including your husband). You could guess, it was about the extra eggs that you took.

Then your husband came to your room with upset face, took his money bag and went out to shop. He brought some more eggs for his mom. Though, he is giving all the bills and rent of the house and his brother giving the food expenses. But if you touch any food, your husband has to give the food cost too.

So, you have no right on anything. You are not the main member of the house. You just have to stay, eat food and listen to others.

Sunday, November 24, 2013

সবারই এগিয়ে চলা উচিত। থেমে গেলে শুধু নিজেরই থামা হবে, চারপাশটা ঠিকই এগিয়ে যাবে (We should keep moving, if we stop, only we will be stopped, whole world will go far away)

দূর্ঘটনার পর মাছ ব্যবসায়ী আবার সব মাছ সংগ্রহ করছেন

যারা জীবনে বড় কিছু করেছেন, বা সফল করেছেন নিজেকে, তাদের সবাই অনেক সমস্যার মোকাবেলা করেছেন জীবনে। শারিরীক, মানসিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক নানা সমস্যা সব সময়ই তাদের ঘিরে রেখেছিল। বিভিন্ন ধরনের সমস্যা সামলে উঠেছিলেন বলেই আজ তারা সফল।

বলতে অনেক সহজ, করা যে কি কঠিন, তা যে কেউ নিজের জীবনের দিকে তাকালেই বুঝবে। এরপরও অন্যের সফলতা দেখলে অনেকেই বলেন, আহা, কি সুন্দর সব কিছু না চাইতেই পেয়ে গেছে। এতো সহজ নয়। সব কিছুই অনেক মূল্যে পাওয়া। সব কারন দেখা যায় না, আর দেখানোও যায় না।

অন্যে কি করলো, কি পেলো, কি পাওয়া উচিত ছিল, এতো কিছু না ভেবে বরং নিজে কি করতে পারি, কিভাবে কোন সমস্যার উপায় বের করা যায়, নিজের জীবনের লক্ষ্য কি? কি কি উপায়ে সেই লক্ষ্যের জন্য চেষ্টা করা যায়। এটা নিয়ে যখন ব্যস্ত থাকবেন, তখন দেখবেন অনেক কিছুই পেয়ে গেছেন যা আশাও করেন নি। এতো অল্পে ভেংগে পড়লে চলবে কেন।

সমস্যা যখন কোন কুল কিনারা পাবেন তখন কারো সাহায্য নিন। সেরকম নির্ভর করার মতো কাউকে না পেলে নিজেই সমস্যা নানা দিক থেকে দেখার চেষ্টা করুন। কোন না কোন উপায় নিশ্চয়ই পাওয়া যাবে।

Saturday, November 23, 2013

Kids like bed side carpet

Tameem and Shafeen at mom's (my elder sister's) room

A bedside small carpet can makes your room elegant. If you have enough space to put a small bed side carpet then will recommend it. Kids also like it. This became their playmate.

In the carpet market or any shopping place where carpets are available, you will find bed side small carpet too. You can match it with your bed and curtain color and design. In Bangladesh these are available in Baitul Mokarram Masjeed market, New market, Elephant road etc.


In the picture Tameem (my elder sister’s son) and Shafeen (my son) is playing on it. Shafeen was 3 years old in that picture.

Friday, November 22, 2013

Sleeping medicine or cough syrup


Before you take any medicine, especially cough syrup, please check, whether it will fall you in sleep or not. Generally we don’t want to give any antibiotic (especially to kid) for simple cold and fever. We wait and try to minimize the problem with general medicine.


For cold I give my son “Tofen”. His doctor gave him the syrup for getting cough. I got cold now. Didn’t take any medicine first, but now it’s getting out of control, so too some syrup from my kid’s medicine. But after that today whole day I was sleeping. It may happen because after two weeks I got chance to sleep at day time. Or it may happen for taking the syrup.

Thursday, November 21, 2013

ছেলের জ্ঞান, মশার ডিম নিয়ে (Shafeen got to know about the eggs of mosquito.)

শাফিন, ওর স্কুলে, বয়স: চার বছর এগারো মাস।

ছেলে বড় হচ্ছে। জগতের নানা বিষয়ে জ্ঞান লাভ করছে। মাঝে বোঝাতে গেলে ভাষা পাইনা। আর কখনও কখনও ওর অবজারভেশনে অবাক হয়ে যাই। যেমন:

ছেলের সাথে মশা বিষয়ক আলোচনা হচ্ছে। কারন, আমি মশার কয়েল (ফ্রী পেয়েছি) ধরিয়েছি মাত্র।

শাফিন: তুমি মশার কয়েল কেন জ্বালালে?
আমি: তোমাকে মশা কামড়াচ্ছে তাই।
শাফিন: মশা কি চায়?
আমি: তোমার রক্ত খেতে চায়।
শাফিন: কেন?
আমি: রক্ত খেলে ও ডিম পারতে পারবে, আর ডিম থেকে আরও মশা হবে।
শাফিন: মশার ডিম মশার ত্যান্তপুটুস (ন্যাংটো পুটুশ) থেকে বের হয়।
আমি: তোমাকে কে বলল (কিছুটা আতংকিত)?
শাফিন: আমি কার্টুনে দেখেছি, তেলোপোকার কার্টুনে, ওখানে মশা, ওর ত্যান্তপুটুশ থেকে ডিম বের করে।

Tuesday, November 19, 2013

Shafeen’s box

Shafeen on his birthday cake box, was 3 years old

Shafeen on my printer's packet, 4 years 11 months old

Shafeen likes boxes. He likes to play inside it, take food, sleep etc. Sometimes he brought his on the bed and tells me, ‘I will sleep in it on the bed”. He plays with it until it tore apart. I wish someday I could give him a toy house or tree house.

Monday, November 18, 2013

My experience about home maid


You need management power everywhere in your life. Trust me, everywhere you have to handle things and manage properly. Otherwise, everything may go against you and make your life miserable. Like you have to make good management with your family life, working life, relatives, neighbors etc. Even with your home maid. Both you have to learn, how to work alone and done everything well. Otherwise learn how to manage your home maid.


My maid works OK. She has good behavior. And every month she takes 10 to 15 days paid leave. Actually she works half of the month with full payment. After 4/5 months I said, I won’t let you continue this. I can accept 2/3 days leave every month, not 15 days. So, from this month I will cut your salary. She said she won’t do this mistake again. I thought from next day she will leave my house and will start working to other home (home maid has very good demand in this city). But she came and continues working. Till November 16, she was absent for only 1 day. But from last two days, she is absent again.

Sunday, November 17, 2013

কথার সুর কেটে যায় (Miss the rhythm of talking)

Shafeen waiting

কখনও কখনও কথার মাঝখানে বেশি বিরতি দিলে সেই কথার সুর কেটে যায়। তখন আর যেন কথা বাড়ানোর মানে হয় না। আরো কথা থাকলেও আর বলা হয়না। বললেও শুনতে ভাল লাগে না। কি করা উচিত? হয়তো আরেকটু সময় দেয়া উচিত। অথবা হালকা কথা বাড়তা দিয়ে শুরু করা উচিত। এবং সময়ের সাথে সাথে হয়তো আবার তা গভীরে চলে যাবে। অথবা উভয় পক্ষই বুঝবে, এখন আর কথা বাড়িয়ে লাভ নেই। সুর কেটে গেছে, আর ভালো লাগবে না।

Saturday, November 16, 2013

Started screaming, “I will go with the dirty train”.

Shafeen playing with his train, he was 3 years old

When my younger brother was a kid, my dad had transferred to Rangpur. My brother went to Kamalapur Railway station to see off my dad. Here, for the first time he (my brother) the train. He was really excited to travel in it. But nobody listened to the kid. He started crying. Our parent told him (my bro), he train is very dirty. We will take you to a clean and nice train at Shisu Park. My brother already experienced that. So he started screaming, “I will go with the dirty train”. And he continued screaming with his demand for many days.

Friday, November 15, 2013

Good infrastructure



Everybody likes good infrastructure. Even my little son (4 years and 11 months) likes that. Today I get to know about it.


While coming back from school, sometimes I took a narrow and little dark road (between two buildings) to avoid traffic. But my son doesn't like that. Because of him, I always had to take main road. Today I took him to another side road, and surprisingly he was happy. He told me, see mom, this road is very good. Then I understood actually not because of darkness, my son didn't like that narrow road because of its bad construction. But few days back the road had been repaired well. So, today I show him that the road became good now. He is now happy. He said OK from now we will go toward that road too.

Thursday, November 14, 2013

ছোট বাচ্চাদেরও যে এতো সমস্যা হয়

Play ground st Euro Garden Restaurant, Mouchak

নিজের সমস্যা সমাধান করতে যে হিমশিম খায় সে ছেলের সমস্যা কিভাবে সমাধান করবে। কথাটা নিজেকে বলছি। আজ স্কুল ছুটির পর শাফিনের (আমার ৪ বছর ১১ মাসের ছেলে) বন্ধু এসে তার মাকে বলছে, শাফিন আমাকে মেরেছে। (বলুন তো কেমন লাগে শুনতে) আমি ওকে বললাম, কেন মেরেছে? ও কোন উত্তর দিলোনা। ছেলের জন্য অপেক্ষা করতে লাগলাম। ছেলে বেশ দেরিতে আসলো কাদতে কাদতে। আমি জরিয়ে ধরে শান্ত করে জিগ্যেস করলাম, কি হয়েছে? বলল, ক্লাসের একটি ছেলে গালে খামচি দিয়েছে। দেখলাম দুই গালে হালকা আচড়ের দাগ, অল্প লাল হয়ে আছে। এরই মধ্যে সেই ছেলে হাউ মাউ করে কাদতে কাদতে হাজির। বলল, শাফিন আমাকে মেরেছে। (আমি বুঝতে পারছিলাম না ঠিক কোন কাজটা আগে করা দরকার) আমি ওকেও বললাম, কেন শাফিন মেরেছে তোমাকে (নিজের ছেলের হাত ধরে ছিলাম, ওর কাছ থেকে পুরো ব্যাপার জানার আগে কিছু বলা সম্ভব না)? ও বলল, আমি কিছু করিনি। শাফিন সাথে সাথে প্রতিবাদ করলো, না, তুমি গালে ব্যাথা দেয়ার পর আমি মেরেছি। (কি অবস্থা বোঝেন) ছেলের বাবা ছেলে নানা ভাবে বুঝিয়ে নিয়ে আসলো, বলল, তোমরা হাত ধরে আবার বন্ধু হয়ে যাও। ঐ ছেলেও কাদতে লাগল, শাফিনও মুখ ব্যাজার করে অন্য দিকে তাকিয়ে রইলো। বুঝলাম, ছেলে বোঝাতে আরও সময় দিতে হবে। তাই ছেলের বাবাকে শুধু বললাম, আজ হাত মেলানো হবে না। ওরা চলে গেল, শাফিন দৌড় দিলো খেলতে। ওখান থেকে দৌড়ে আবার আমার কাছে আসার সময় এক সিনিয়র মেয়ের সাথে ঢাক্কা লাগল, সে আরেকটু সরিয়ে দিতে গিয়ে শাফিনকে ফেলে দিলো। এবার আমার মহারাজ সজোরে কেদে ফেলল। গিয়ে দেখি, হাত ছিলে রক্ত পড়ছে, বলল, বেশ ব্যাথা পেয়েছে। আমি ওকে সামলে বাড়ির পথে রওনা দিলাম, আর ছোট ছোট প্রশ্ন করে পুরো ঘটনা শুনে নিলাম। পথে আর বাড়ি ফিরে ব্যান্ডেজ লাগাতে লাগাতে ছেলের সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করলাম। ঘটনা যা বুঝলাম তা হলো...

শাফিনের বন্ধু ওর পাশে বসা অন্য একটি ছেলে নানা ভাবে বিরক্ত করছিল। শাফিন সেখানে মাতবরি করে বন্ধুকে মেরেছে। আমি বললাম, এটা খুবই খারাপ কাজ করেছো। আর কখনও মারবে না। যার যেখানে যা খুশি করুক, তুমি ওখানে কিছু বলবে না, ওখানে যাবে না, এটা তোমার বিষয় না (এই মুহুর্তের জন্য এটাই সমাধান)।

আর ছুটির পর বের হবার সময় শাফিনে সবার আগে বের হবার চেষ্টা করছিলো। কিন্তু ক্লাসের অন্য ছেলে ওর ব্যাগ সরানোর চেষ্টা করছিল, তাই সে ধাক্কা দিয়েছে। এরপর সেই ছেলে সিনিয়র ছেলেদের কাছে নালিশ করে, ওদের দিয়ে শাফিনকে ঢাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়েছে, আর পিছন থেকে এসে গালে ব্যাথা দিয়েছে। শাফিন সেটা দেখে ঐ ছেলেকে আবার মেরেছে। (বুঝেন অবস্থা)।
আমি শাফিনকে বললাম, দেখো, ভিড়ে কখনও ঢাক্কাঢাক্কি করবেনা। এটা খারাপ। যে কেউ ব্যাথা পাবে। তোমার সবার আগে যাওয়ার দরকার নেই। যত দেরিই হোক না কেন, তোমার মা বাইরে দাড়িয়ে তোমার অপেক্ষা করবে। আর যেহেতু ওর সাথে তোমার একবার মারামারি হয়েছে, এখন কিছুদিন ওর থেকে দুরে থাকবে, আমি চাইনা তোমরা আবার মারামারি করো। ছেলে মেনে নিল। আশা করি এসব নিয়ে আর কোন সমস্যা হবে না। একদিনে বেশি আর বললাম না, না হলে ছেলে হয়তো কোনটাই শুনবে না।

Wednesday, November 13, 2013

Speed boat ride

Me and Shafeen at Potenga beach with lots of speed boat

There are some moments, which always gives you pleasure. Riding on speed boat is one of them. I didn’t get much chance to go with a speed boat. Two times I ride on Bay of Bengal at Potengabeach. Another time I ride on Kaptai lake at Rangamati. Every time I enjoyed a lot. Last time my son was with me. He wanted to go again and again.


Another wish is still incomplete; I never ride on big ship on ocean. Some day like to have that experience too

Tuesday, November 12, 2013

Need peace in mind

 Ixora (Rongon) Flower tree

No matter what you want to do, first you need peace in mind. Then you will enjoy your work and other things. and you job will be done perfectly. But you know, the world isn't the bed of roses. You have to face many difficulties, mental stresses. In this condition, it’s really difficult to calm down and give peace in mind.


To have this mental refreshment, people do meditation; keep themselves busy with hobbies (traveling, fishing, reading etc) and love. Yes, the best way to make you happy and enjoy your life is love. Sometimes we don’t care or take care about it. People only understood its value when they lose it.

Monday, November 11, 2013

সমস্যা সমাধানের আমার উপায় :) (My way to solve any problem)

তামিম, চিন্তা-ভাবনায় মগ্ন

কোন সমস্যায় পড়লে, চিন্তা ভাবনা করে কোন রকমে একটা সমাধান বের করতাম, অধিকাংশ সময়ই সেটা ঠিক সমাধান হতোনা, মেনে নেয়া বা ইগনোর করা হতো। তারপরও একটা সিদ্ধান্তে চলে আসতাম। এরপর ঐ বিষয় নিয়ে চিন্তা করা একেবারে বন্ধ করে দেই। এক বিষয় নিয়ে বারবার চিন্তা করে মাথা খারাপ করার মানে নেই।

আবার কোন কোন বিষয় বা মানুষ আছে, যা নিয়ে বা যাদের নিয়ে মনে মনে গবেষণা করা দুরে থাকুক ভাবলেই অসুস্থ বোধ করি। সে ক্ষেত্রে সমাধান একটাই। একেবারে ঐ বিষয় বা মানুষদের নিয়ে চিন্তা না করা। শুধু শুধু অসুস্থ হবার মানে হয়না। যতদূর সম্ভব এসব বা এদের থেকে দুরে থাকি। পরিস্থিতি এদের, সামনে এনে দিলে যতদূর সম্ভব কোন রিঅ্যাক্ট করিনা। না দরকার হলে কথা বলি না। দুরে থাকলেও কিছুটা ভাল থাকা যায়।

Sunday, November 10, 2013

Convince yourself to start

Shafeen was holding my hand and playing with the sea water

We have fear on big things, which we never tried, where we can assume problem. If anyhow, we just touch or give first step, we can see all that we guess fearing are not dangerous or humiliating at all. You just need to convince yourself to start. Then all will be done smoothly.


Shafeen was afraid of Sea. Then I let him touch the water on my lap. He started liking it, then played long time in the sea. At the end I had to fight with him to take him back from water.

Friday, November 8, 2013

We should have little more respect on women sections


In Bangladesh, we, women are little reserve. So, almost everywhere there is a women section, where women are working for women. Like security checking, lab testing, tailor etc. And it should be. But you know… women section is always very interesting for men. Boys will be boys, really difficult to make them understand to give some space for women.

Let me give you an example. In Mouchak Market, every tailor keeps a woman to take measurement of the girl’s body for making dresses. This is good. In the market, most of the tailor shops are surrounded by glass. So anybody can see other’s customer. When a lady start giving measurement by a lady, all the boys of other tailors start looking at her… and so on. You can assume it’s not a good feeling for any lady.

In every lab, they keep a woman (at least one) to take ECG. If you have experienced previously, you must understand it’s not a comfortable situation for any woman in front of any other person. In Square Hospital I had to test ECG (long time back). Among 3 staffs (all women) one took me in a covered area and start taking the report. When the ECG report were taking other staffs (woman) came and looked on me (you know what I mean) and left. I felt they came just to see my body! Allah knows, nobody will like this attitude.


We have to be little more civilized in these sections.

Thursday, November 7, 2013

জ্বরের মৌসুম

photo credit: Shafeen

তিন সপ্তাহ জ্বরে ভুগে, ওজন ১০ কেজি কমিয়ে ভাবলাম, যাক এবার ফুল স্পীডে কাজকর্ম করা যাবে। কিন্তু হলো না, আবার জ্বরে পরলাম। মনে হয়, ঢাকা শহরে জুরে চলছে, জ্বরের মৌসুম। বাসার সবাই একে একে, কখনও বা সপরিবারে জ্বরে ভুগছে। এই রোগ মনে হয় আমার জন্য স্বর্দি, কাশির মতো হয়ে যাচ্ছে। জ্বর হয়েছে, কম্বল মুড়ি দিয়ে শুয়ে থাকো। মাথা ব্যাথা বেশি হলে ওষুধ খাও, ঘুমাও। সুপ খাও। যতদূর সম্ভব বিশ্রাম নেও। কাজ বাধ্য হয়ে করতে হলেও স্লো মোশনে ধীরে ধীরে করো, আর মাঝে মাঝে বিশ্রাম নাও। জ্বর সারার অপেক্ষা করো।

Sunday, November 3, 2013

When will have time with sea?


I have patience. I can wait. But I can’t cancel. I just can’t. Once I make plan that I will go there, I must go. If no one is ready to go with me, I will go alone. But I won’t cancel my program. If anyhow, I can’t, I will postpone the program and again when I get chance will go. I just need better situation to complete my plan.

Saturday, November 2, 2013

For whom you like the place


Whenever you go to any new place or website, first you have no idea, how that place will be. Then you will find there one reason, for what or whom that place may become very interesting. You will give time over there, will enjoy and also will help others to enjoy.

For any reason, if that thing or person left that place, what will happen? It will become very empty for you. You won’t feel any interest to go there or do any work over there. A simple reason or a person is making you leave that place.

Friday, November 1, 2013

বিরক্ত করতে তো ভালই লাগে


মাঝে মাঝে কাউকে বিরক্ত করতে খুব ইচ্ছ করে। শুধু শুধু অহেতুক কথা বলে, কাজে বিরক্ত করে, কাজ বন্ধ করিয়ে যেখানে খুশি নিয়ে ঘুরতে, ইচ্ছা করে নেগেটিভ দিকগুলো বেশি বেশি করে বলে...।
পরে নিজেকে সামলে নেই। নাহ থাক। কি দরকার। বিরক্ত হয়ে রেগে গেলে তো আমারই খারাপ লাগবে বেশি। থাক, যে যেভাবে আছে, থাক তার মতো...

বিরক্ত করতে যতই ভালো লাগুক, বিরক্ত হতে তো ভালো লাগে না।