Saturday, May 31, 2014

শাড়ি আর লুঙ্গি, এতো সহজ পোশাক নয় (Sharee and lungi are not easy to wear dress, as they seems)


বাংলাদেশের জাতীয় পোশাক বলে কিছু নেই. থাকলে হয়তো শাড়ি (মেয়েদের জন্য) আর লুঙ্গি (ছেলেদের জন্য) হত. কিন্তু এই পোশাক দুটি সামলানো যে কি কঠিন সেটা যারা নিয়মিত ব্যবহার করেন তারা বুঝবেন না.

শাফিনের (আমার ৫ বছর বয়সী ছেলে) স্কুলে "যেমন খুশি তেমন সাজ" প্রতিযোগিতা হচ্ছিল. কেউ গায়ের বধু (শাড়ি পরে), কেউ রাখল বালক বা মুক্তিযোদ্ধা (লুঙ্গি পরে) সেজেছে.

দেখা গেল লুঙ্গি পরে ছেলেগুলো একটু পর পর মায়ের কাছে আসছে বা খালার কাছে যাচ্ছে লুঙ্গি ধরে. "খুলে গেছে, আবার পরিয়ে দাও.". সবাই হাসছে, ২ মিনিট পর পর একই বিড়ম্বনা.

ক্লাসে যে মেয়েটি চঞ্চলতায় ছেলেদের হার মানায়, সে আজ একেবারে চুপ. কারন শাড়ি পরেছে. সিড়ি দিয়ে উপরে যেতে পারছেনা. শাড়ি পরেছে বলে. খালা বাধ্য হয়ে কোলে তুলে ক্লাসে নিয়ে গিয়েছে.

অবস্হা দেখে মনে হচ্ছিল ওদের শাড়ি, লুঙ্গি পরানো হয়েছে শাস্তি দেবার জন্য.

Friday, May 30, 2014

If there is no space to play then my son won’t go there…


Now a day (after my son’s born), wherever I go, I take my son with me. Main reason is, all day he has to live with me, so for some change I take him with me. Another reason is to make him familiar with the busy world.

Now my son grow up little bit (5 years and 5 months old). He has his own opinion. So, if I asked him to go out with me. He asks, is there anyplace to play? If I say, no, he told me to keep him to his grandmother’s house (maternal), and then I could go anywhere I want.

But 5 years, a long time habit. Now I don’t want to go without him. I don’t feel good working alone…. Though I should…


So, I am thinking, I won’t ask him, just make him ready, and take him with me. I am the mother; my decision would be the last decision…

Tuesday, May 27, 2014

for the poets


কবিরা কবিতা লিখেন না অনেকদিন (হয়তো নানা সমস্যায় পরে বা কাজের চাপে), তাই উত্সাহ দিতে নিজেই বিরল প্রতিভা নিয়ে লিখলাম,

"তোমার মত চুপটি করে,
আমিও যদি লুকোই গিয়ে,
তুমি তখন একলা ঘরে কেমন করে রবে?
আমিও নাই তুমিও নাই,
কেমন মজা হবে"

(বুঝতেই পারছেন কোত্থেকে চুরি করেছি :) )

Sunday, May 25, 2014

খুব কম সময়ের জন্য হলেও (may be for few moments)


আগে ভাবতাম, আমি কেন একটা বিষয় নিয়ে বেশিক্ষন আনন্দে থাকতে পারিনা. কেন সেটা মিথ্যা বলে আবার ধরা দেয়? এখন ভাবি, হলোই বা মিথ্যা. সত্য জেনে আমি যেভাবে খুশি হয়েছিলাম, সেটা তো আর মিথ্যা নয়. তাহলে এটুকুই বা কেন উপভোগ করিনা. হলোই বা সে কয়েক মুহুর্তের সত্য. এটুকু আনন্দ বা মেনে নিব না কেন. নইলে আর থাকে কি?

যা আমার না তা নিয়ে কান্নাকাটি করি না. যা আমার ভেবে আনন্দ পেয়েছিলাম, সেটুকুই আমার পাওয়া. কম হোক আর বেশি, এই বেশি কেন পেলাম না, তা নিয়ে আর মন খারাপ করি না.

Earlier, I thought, why can't I be happy for more than a single day? Why my happiness proves that I was wrong about it? Now a day, I think, maybe I was wrong. But because of that I felt happiness in my mind for few moments. Why don't I enjoy that? Otherwise, what else left for me?

I never cry or try to get what is no mine. If by mistake I felt happy that it was mine, then let me be happy for few moments. "Why I am not getting more", why should I waste my time by thinking of that?

Saturday, May 24, 2014

Shafeen tried to make his mom look beautiful


My son likes to see me beautiful. He wants me to wear ornaments, put make up, and wear beautiful dresses. If for any occasion I wear ornament he doesn’t want me to put off after returning home… In the picture he put henna on my hand by himself. He was only 3 years and 9 months old.

Friday, May 23, 2014

Both are human, then why one has to take responsibility?


In our society or even in the world, man and woman has different style of work, different responsibility. From the Creator a different responsibility came to woman on kid and rest made by the society. Today I am not going to arguing on that.

I point is on other side. After married a woman has to have or do many responsibility to her in laws family in Bangladesh. What about man? Why not man take responsibility towards his in law family too? Why this difference? Both are human.

Thursday, May 22, 2014

আমি দেখি আমার কোন কিছুই ভালবাসি না (I don't like anything of me!)


একটা জায়গায় জিজ্ঞেস করা হয়েছে, আমি নিজের কোন বিষয়টা সবচেয়ে বেশি ভালবাসি. অনেক চিন্তা ভাবনা করেও কোন কিছু খুঁজে পাচ্ছিনা, যা নিয়ে আমি জোর গলায় কিছু বলতে পারি. আমি দেখি আমার কোন কিছুই ভালবাসি না. তাই তো বলি আমাকে কেউ পছন্দ করে না কেন. আমি নিজেই কোন গুন খুঁজে পাচ্ছিনা, অন্যে আর কি করে পাবে. :)

Somewhere it had been asked, what is the most amazing thing you have, that you like most. Well I thought a lot, but couldn't find anything. I surprised! I don't like anything of me! Hmm that's why nobody likes me. :)

Wednesday, May 21, 2014

Adjust with the weather


A new world is always difficult to adjust. When a baby comes out from their mother’s womb, their fighting or adjustment started with the world. My son learned if you feel cold, cover yourself. So, when he got sweat after playing, he found that he is feeling cold as the wind is giving cold feeling because of his sweating. So he covered himself not to get cold (as mom said). J

Unless I bring him out and wipe his sweat by soft cloth.

Wednesday, May 14, 2014

Troubles come in life like a never ending process


Every time I solve any problem, I can’t celebrate or be happy much. Because, the next problem already came and knocking at my door. Seems, it’s a never ending process. Every time a trouble comes and makes us remind that we are not living in heaven but Earth. Where we have to face various troubles, fight with it (sometimes win and sometimes loose) and live with that.

Monday, May 12, 2014

রিক্সাওয়ালাদের ইচ্ছা


রিক্সা ওয়ালারা অনেক কষ্ট করে সারাদিন (?) রিক্সা চালান. অনেক কষ্ট করে জীবন ধারন করেন. এমনিই সবাই বলেন. আমি এর পক্ষে নই. আমি জানি যাদের নিয়মিত রিক্সায় উঠতে হয় তারা সবাই ভুক্তভুগী.

ক্লাস ৫ থেকেই আমি বাসা থেকে কিছুটা দুরের স্কুলে পড়তাম. তাই রোজই রিক্সা করতে হত. তখনিই দেখতাম আমাদের এলাকার রিক্সাওয়ালাদের দৌরাত্ব. একজোট হয়ে ভাড়া বাড়াত (এখনও তাই). বাসে আমার কষ্ট হয়. বমি আসে. তারপরও রিক্সাওয়ালাদের সাথে খ্যাচখ্যাচ করার ভয়ে বাসে উঠতাম. ঘন্টার পর ঘন্টা দাড়িয়ে থাকতাম ঠিক ভাড়ায় রিক্সা পাবার জন্য.

এখন ছেলেকে নিয়ে স্কুলে যাওয়া আসার সময় এই ভোগান্তিতে আবার পরেছি. এই এলাকার রিক্সাওয়ালাগুলো বউ দিয়ে কাজ করিয়ে রোজগার করে. নিজের চা বিড়ি ফোকার টাকা হলে আর কাজ করেনা . কখনো কখনো তাও বউ বা বউদের দিয়ে কমিয়ে নেয়. যে হঠাত কোন কারনে বিপদে পরে রিক্সায় ওঠে সে কয়েকগুন বেশি দিতে পারে, যে রোজ যায় তার পক্ষে এত বেশি দেয়া সম্ভব না. অন্য এলাকায় যেখানে ১০টাকার বেশি নিবে না, সেটা এরা ৫০/৬০ টাকা অবলীলায় চাবে. মেজাজ/খারাপ ব্যবহার তো আছেই...

Sunday, May 11, 2014

Ocean at noon

The Bay of Bengal from Cox's Bazaar

You will always feel great when you keep yourself down inside the water. It could be your bathtub, swimming pool, pond, river or ocean. No matter how high the temperature is, it will give you cool in mind and body. Especially in ocean, you will love to enjoy the waves and water.

Friday, May 9, 2014

rice insect


Everyday new information is adding in our life by science. We had to change our life according to that info. I was washing rice for cooking. I found lots of rice insect inside it. You know, if you store rice for long time you have to face it. And these insects don’t destroy by keeping rice in airtight drum or bag. Only solution is wash it away before cooking. I just hope someday science won’t find any nutrition inside these insects, which we will have to eat with rice J

Thursday, May 8, 2014

আমাদের বৃষ্টি (Our rain)


ছোট বেলায় দেখতাম, বৃষ্টি হলেই সবাই ছুটে যেত কোন সেডের নিচে. বুঝতাম না কেন. গরমে বৃষ্টি তো আরো আরাম দায়ক হওয়ার কথা. কোন সেড না পেলে হাতে যা কিছু থাকে তাই দিয়েই মাথা ঢাকার চেষ্টা করে. বই, রুমাল, হাত যা দিয়ে সম্ভব মাথা ঢেকে ফেলে. পরে দেখা যায় কোন উপকারী হয়নি. সারা শরীর ভিজে জবজবে. তারপরও বৃষ্টি থেকে বাচার কি চেস্টা. অথচ আমার তো বৃষ্টিতে ভিজতে খুবই ভাল লাগে. কি শান্তি শান্তি একটা বিষয়. কাপড়  ভিজলে সমস্যা কি? এমনিতেই বাতাসে শুকিয়ে যাবে. না হলে বাড়িতে গিয়ে বদলে নিলেই হলো. 

আমার মনে পরে, আমরা চার বোন বৃষ্টি হলেই ছাদের চাবি নিয়ে ছাদে দৌড় দিতাম. হালকা জমে যাওয়া পানিতে নেচেছিও (আগে আসলে একটু খুশি হলেই নাচতাম).

আমার ছেলেও খুব বৃষ্টি পছন্দ করে. বৃষ্টি হলেই বলে, বৃষ্টিতে গোসল করবো. আমি বাগানে নিয়ে যাই. বারান্দার রেলিং থেকে হাত বের করে বৃষ্টি ধরার চেস্টা করে. স্কুল থেকে ফেরার পথে বলে চল আম্মু আমরা বৃষ্টিতে ভিজি. ছেলের হাত ধরে বৃষ্টি ভিজতে ভিজতে হাটতে থাকি. রিক্সায় উঠলে বলে হুড তুলে দিওনা. যখন বাকিরা রেইন কোট আর ছাতা নিয়ে বের হবে কিনা ভাবছে....


I had seen in my childhood (even now) whenever rain comes, people run and go below any shed to save them from rain. I really don’t know why? In the summer (in hot and humid weather) rain should be more comfortable situation than any other. If they don’t found any shed they try to save their head with anything they can manage, book, handkerchief, even own hand. But finally nothing rescues them from heavy fall of rain. But still they keep trying.  I really don’t know why. I like rain. It brings peace in mind. What’s wrong if my dress became wet? It will dry automatically. Or I can change it at home.

I remember, we the four sisters run towards the roof, whenever rain comes. Sometimes I dance on water (on those days I use to dance whenever I felt happy).


My son likes rain too. Whenever rain comes, he asks me to let him to go take bath in rain. I take him to the garden. Sometimes he tries to hold water from baranda’s grill. After school, if rain comes. He asks me to walk in the rain. I hold his hand and start walking in the water. If we take any rickshaw he tells me not to take any shed. We enjoy rain together. While others are busy with rain coat and umbrella. 

Wednesday, May 7, 2014

Take some leisure time too, to enjoy everything.

Shafeen relaxing at Cox's Bazaar

You can only feel the value of your leisure when you are deep in your work. At those moments you will like to take breath in fresh air, have some relax time, enjoy time without any tension. You will wish to continue your leisure time for the rest of your life

But if you continue like that you won’t enjoy anything. Things will be boring, you might look for something more exciting and nothing can satisfy you.

These go for food too. You can’t only live with rich food/junk food. Take traditional and healthy one regularly to enjoy other food which you might take occasionally.


So, concentrate on your work, do productive work, eat good food (not only tasty one), which will help you have a good life with a good health. And yes, take some leisure time too, to enjoy everything.

Friday, May 2, 2014

If you can’t do it then don’t ask to your wife to do this.


In our country it’s a common question to any bride, why don’t you  like to live with your in law family (where you have to obey you’re in laws, complete all job given by them, have to live like them, have to take permission for everything, dress up according to their choice etc)? What will be the answer, if I ask the same question to the groom? Why you boys don’t like to live with your in laws, where you should work for them, take responsibility of all work, listen to them, obey them, never raise your voice only listen even they says bad words about your parents etc?


If you can’t do it then don’t ask to your wife to do this. Both of you are human. 

Thursday, May 1, 2014

কল্পনা


মনে মনে বলেছিলাম, বৈশাখের প্রথম বৃষ্টি হলে ফোন করে শুভেচ্ছা দিও. ফোন আসেনি. আসবে কেন? মনে মনে বললে কেউ কি শুনতে পায়? এসব মনে মনেই গুমরে মরে. অথবা শুনেও গুরুত্ব দেয়নি. কি দরকার? তাই তো তাই তো... (বৃষ্টিতে অদ্ভুত কল্পনা)