Friday, July 31, 2015

সমস্যার সামনে দাড়ানো (Face your problem)


[English version has given below]

আমি দেখেছি, কষ্ট আর সমস্যা এদুটোকে আপনি যত দুরে ঠেলতে চাবেন তত কাছে আসবে। উপেক্ষা করলে একসময় আরো বড় আকারে ঘাড়ে চেপে বসবে।
তাই যতই মন খারাপ হোক, কষ্ট হোক, যত তাড়াতাড়ি এর সামনা সামনি দাড়ানো যায় ততই ভাল। তারপর যা হবার হবে। হয় আপনি জিতবেন না হয় হারবেন। তবে যন্ত্রণা আর থাকবে না। আমার মতে এটাই ভাল। দু:খ পোষার কোন মানে হয় না।

আপনি চুপ থাকলে যাদের অন্যকে যন্ত্রণা দেয়ার অভ্যাস তারা তো দিতেই থাকবে। যদি সরাসরি সামনে এসে দাড়ান, তাহলে সে ভালো হয়ে যাবে, এটা বলছিনা। তবে কিছু করার আগে একবার অন্তত: ভেবে দেখবে।


I have seen no matter how much you push your problem and pain away, it will come closer. If you ignore them, they will become stronger and will hurt you more.

So, no matter how hard it is, face your problem. Don't need to think, what will happen next. Either you will win or lose, but that pain will be gone. I think this is better. NO need to keep your pain on your heart.

If you keep silent, people who has habit to hurt other will continue. Stand in front of them, I am not saying they will change their attitude, but they will think twice, before they attack you...

[October 05, 2007]

Thursday, July 30, 2015

তাদের বুঝতে পারছি (Now I can understand them)

[English version has given below]

মানুষের জীবনে বেশ কিছু ধাপ বা মোড় আছে, যেখান থেকে জীবনটা অন্য দিকে প্রবাহিত হতে থাকে। শুধু থেকে যায় স্মৃতি। সেখানে কেউ ভাল, কেউ মন্দ। এই সময় আমি ঠিক বুঝতে পারিনা, আসলে কে কি রকম, আমার ধারণা কি ঠিক, না ভুল।  আজ মনে হচ্ছে, জীবনের এই প্রান্তে এসে দেখছি, কিছু কিছু ঘটনা ঘটেছে, শুধুমাত্র আমাকে জানানোর জন্য কে কি রকম।  একে বারে সাদা আর কালোর মতো করে পরিস্কার তাদের বুঝতে পারছি... এতেও খানিকটা ভাল লাগছে। এটুকু জানার প্রয়োজন ছিল।

There are some huge steps in life, from where you just change or go into another segment of life. Only remains the memory of people where some are good and some not. Actually I don't understood clearly how they are. Was I right about them or not. Now I am standing in a place, from where I can see many incidents which I felt are only happen to make me understand about those people. Now everything seems crystal clear. I really feel good to know about these persons.

Wednesday, July 29, 2015

নকল হাসি (False smile)


[English version has given below]

নকল হাসি, ভাল লাগে? নাহ...
তারপরও কোন কোন ক্ষেত্রে এর সত্যি দরকার আছে।

আমি এ্যাপোলো হসপিটালে গিয়েছিলাম "জানতে চাই"কে দেখতে। ওখানে ও যখন নার্সকে ডেকে পাঠালো সে আসল মুখে হালকা একট হাসি নিয়ে, বলল, "যে বলুন কি করতে পারি আমি আপনার জন্য।"
হাসিটা অবশ্যই প্রফেশনাল ছিল। কিন্তু আমার মনে হয় এর দরকার ছিল। এতে রুগির মন ভালো হয়।

কারো সাথে কথা বলার সময়, বিশেষ করে কোন কাস্টমার সার্ভিস নেয়ার সময়ও যদি সার্ভিস ম্যান হেসে কথা বলে তো আপনার ভালো লাগবে। যদিও আপনি জানেন, এটা নকল হাসি।


False smile, do you like it? Nope...
But you know it's very much needed sometimes.

Once I went to Apollo Hospital to visit "Jante chai". When she called a nurse, she came with a nice smile, and asked, "May I help you?"

I knew her smile was part of her profession, but it was really needed for the patient. Who can feel relax, only for that smile.

When you talk with someone, especially, if that person is from customer care, you will really feel good to take service, if they talk with a smile, though you know very well, it’s a false smile.


[October 03, 2007]

Monday, July 27, 2015

পুরানো অভ্যাস (Old habit)

[English version has given below]

কিছু কিছু পুরানো অভ্যাস যেতে চায়না সহজে... অনেকটা পুরানো মাউস ব্যবহারের মতো। অনেক দিন পুরানো (খানিকটা নস্ট) মাউস ব্যবহার করার পর, যখন নতুন মাউস কেনেন, দেখবেন আপনি স্ক্রল ব্যবহার করছেন না।  কারন পুরানোটাতে স্ক্রল নস্ট ছিল।

There are some old habits from where you just can't back off. It's like your old mouse (With difficulty) from computer. After using old one for a long time, when you start using the new one, you will find that you are not using its scroll, because it was damaged in the old one...

Sunday, July 26, 2015

ছবি সংগ্রহ (Photo collection)



[English version has given below]

আমার ব্যাক্তিগত ক্যামেরা নেই, কোন অনুষ্ঠানে গেলে অন্যের তোলা ছবির উপর নির্ভর করতে হয় । আমার আবার এ ব্যাপারে আগ্রহ অসাধারন, তাই আগে (এখন অবশ্য মোবাইলে তুলি) যে কয়জন ছবি তোলে, এক এক করে সবার কাছ থেকে নেগেটিভ নিয়ে ফটো ওয়াশ করতাম। যে ছবিতে আমার ছায়াও আছে সেটাও আমি ওয়াশ করতাম।
ইদানিং সফট কপিও এভাবে সংগ্রহ করি। তবে ফেসবুক জনপ্রিয় হওয়ায়, আর পরিচিত অনেকেই ফেসবুক এ থাকায় এখন ছবি সংগ্রহ বেশ সহজ হয়ে উঠেছে। 


I don't have any personal camera (till now). So, whenever I go to any function, I had to rely on others camera. Previously I use to go each and every person who had taken picture and collect all negatives, and then wash those where I am visible... even if I see my shadow on a picture. Now a day I collect soft copy like that. Though, I took pictures with my cell phone. But as Facebook becoming popular day by day and many of my known people are in my friend list... so photo exchanging became easy...

[July 25, 2007]

Saturday, July 25, 2015

চাঁদের আলো দেখলেও মনে সন্দেহ হয় (Even we doubt when we see the moon light)

[English version has given below]

একটা সময় ছিল যখন ঢাকা শহরে ৫তলায় থাকলে আলো বাতাসের আর কোনো অভাব হতো না। এখন পরিস্থিতি দ্রুত বদলাচ্ছে।  শুধু খালি জায়গা নয়, যাদের ৩/৪ তলা বাড়ি আছে, তারাও সেটা ডেভেলপারের কাছে বিক্রি করে দিচ্ছেন। ফলে সেখানে তৈরী হচ্ছে বহুতল ভবন। যেখানে চারপাশে বহুতল ভবন, সেখানকার বাসিন্দারা চাঁদ সূর্যের মুখ দেখতে পারেন কিনা সেটা জানা নেই। তবে আমাদের বাসার দুপাশে রাস্তা থাকায় কস্ট করে হলেও এক চিলতে আকাশ দেখা যায় বারান্দা দিয়ে। তারপরও সন্দেহ থেকে যায়। এই কারনে রাতে যদি বারান্দায় সাদা আলোর বন্যা দেখি তো আগে একটু পরীক্ষা করে নেই, এটা চাঁদের আলো তো? নাকি কারো বারান্দার উজ্জল আলো দুরে আমাদের বারান্দায়ও চলে এসেছে।

Once upon a time, people who use to live on 4th floor could get lots of sun light and natural air in the Dhaka City. But things are changing very rapidly. Now a day people who have 3/4 storied building, sale them to the building developers. And then the developers build high rise buildings or apartments. I don't know people who live in between those high rise buildings can see the sun or moon. But we are lucky in that sense, because we have road at two sides of our building. So, from Baranda we could see a bit of sky. But still whenever I saw moon light at night in our baranda first I check, is it from any other building's light or the moon somehow manage to came into our house...

Friday, July 24, 2015

নতুন কিছু চালু করা (To start anything new)


[English version has given below]

এমন কোন একটা জায়গায় থাকা খুবই কষ্টকর, যখন আপনি জানেন এখানে কেউ আপনাক পছন্দ করছে না, অথবা আপনার উপস্থিতি মানতে চাচ্ছে না।
তারপর সেখানে যদি আপনি নতুন কিচু চালু করতে চান সেটা তো আরোও কঠিন।
কিন্তু করবেন, এটাই দুনিয়া, এখানেই আপনাকে খাপ খাইয়ে নিতে হবে।
আপনি আপনার যুক্তি সহকারে যে বিষয়টা চালু করতে চান সেটা প্রথমে সবাইকে বুঝিয়ে বলুন, প্রথমে সেটা কি? এবং তারপর কেন আপনি চালু করতে চান?
এরপর ধীরে ধীরে শুরু করুন। প্রথমে হয়তো কেউ মানতে চাবে না। আপনি নিজে নিয়মিত মানা শুরু করুন। যদি বিষয়টা ভাল হয় তো ধীরে ধীরে অন্যরাও মানতে শুরু করবে। আর যদি দেখেন যে সবাই জোট বেঁধে ঠিক করে রেখেছে আপনার চালু করা কোনো কিছুই তারা মানবে না, তাহলে ইচ্ছা হলে শুধু নিজেই মানতে থাকুন না হলে আপনিও বাদ দিয়ে দিন আপনার সেই নিয়ম।  সব সময় চাইলেও সবার ভাল করা যায় না।  বা তারা এই ভালোর উপযুক্ত না। 


It's really difficult to stay in a place where you know no body likes you, or no body want you to be there. Then if you try to start anything new over there then that will be a very tough condition. But what else you can do, it's the life, in every step you need to adjust with others.

To establish your point, first try to make them understand the total thing with logic, what is the thing and why you want to start it. Then slowly start it. If no body want's to accept it then it try it by yourself. If you continue, people will understand by watching you and they may start it too.

If any how they became united not to accept anything from you then you can continue if you like to or may forget about it. You know, no matter how hard you try, everybody won't accept the good thing, or they might not deserve that good thing.

[July 06, 2007]

Monday, July 20, 2015

অপেক্ষা (waiting)

[English version has given below]

আগে যখন কোনো বিষয়ের জন্য অপেক্ষা করতাম, সব সময়ই তার একটা সীমারেখা ছিল। যেমন, ৪টা পর্যন্ত অপেক্ষা করবো, পরীক্ষার আগ পর্যন্ত অপেক্ষা, ইন্টারভিউয়ে যাওয়ার অপেক্ষা, রেজাল্ট এর অপেক্ষা...

সময় এখন এমন জায়গায় এনে দাড় করিয়ে দিয়েছে, যেখানে অপেক্ষার কোনো শেষ নেই, এটা মেনে নিয়েই যেন অলিক এক আশার জন্য অপেক্ষা করতে হচ্ছে। অপেক্ষা ছাড়া কোনো উপায় নেই।  আর এই অপেক্ষা করেই, জীবনের বাকি অংশগুলোকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হচ্ছে। আবার এটাও মানতে পারছিনা, যে এই অপেক্ষার আর দরকার নেই, বরং ধরে নেই, যা কিছুর জন্য অপেক্ষা করছি, তা কখনোও আসবে না... নাহ আমি কখনো নিরাশ হবোনা, দেখতে থাকি, জীবন আর কি কি রেখেছে আমার জন্য... সে যাই হোক আমি তা মেনে নিতে প্রস্তুত। 

When I was young, I always had to wait for something for a limited time. Like I will wait till 4 pm, waiting till the exam result gets out, waiting for interview date, waiting for interview result etc.

Now, my life is in such situation that I had to wait for everything for the rest of my life. There is no time limit, it may not come at all in my life, but I have no choice but waiting. With this waiting, I had to continue other things of my life.

Anyway I will never give up, I like see what else I am going have from now on... whatever it is I am ready to accept it.

Sunday, July 19, 2015

সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করার ফল (Result of finishing work in time)


[English version has given below]

কোন কাজ নির্দিস্ট সময়ে শেষ করার মতোন শান্তির কিছু আর নেই। মনের উপর কোন বোঝা থাকেনা। পরের কাজ নিয়ে শান্তি মতোন চিন্তা করা যায়। বা অবসর সময় কাটানো যায় নিজের মতোন।

তবে একটা সমস্যা আছে। আপনি যখন কাজ ঠিক মতোন শেষ করে রেস্ট নিবেন, তখন আপনাকে বলা হবে, কি ব্যাপার সাড়াদিন শুধু রেস্ট? একবারও ভাববেনা তা হলে কাজটা ঠিক মতোন শেষ হলো কি করে...

এরপর আপনি যতই ব্যাখ্যা দিন না কেন কি কি করেছেন, সেটা আর কেউ মনে রাখবে না।

আগে ভাবতাম লোক দেখানো কাজ করা ভালো না। এখন মনে হচ্ছে, এরও প্রয়োজন আছে।

[০৪ ঠা জুলাই, ২০০৭]

The thing that can give you most peace in mind is completion of work in time. It removes all burdens from mind. You can thing about your next work. And can take a break.

But there is big negative side of this situation. After completion of your work, when you are ready to take break, that moment people will say, "Do you spend your time like this whole day?" Will never notice if I did so, then who completed this work in such way.

Then no matter you try to make them understand what had you done, nobody will show any interest on that.

Previously I thought it's not good to show up your work. Now I thing, it’s actually needed...


[July 04, 2007]

Saturday, July 18, 2015

Eid Mubarak



Eid Mubarak to you all.

I was so tired after Iftar, so to take rest I just wanted to take small nap on bed. But fall in sleep. As mom is sleeping, my son started celebrating the Eid. He opened the 7up bottle, tried to send sms to get an offer. open the Henna tube and colored his own hand. Then also make some design on my hand. Also tried to tide mosquito net for me, failed.

He really started making me feel like Eid. Thank you Son.

Friday, July 17, 2015

মনোবল (Mental strength)

[English version has given below]

মানুষের জীবনে মনোবল অনেক গুরুত্বপূর্ন। মানুসিক ভাবে যখন আপনি নিজের উপর আস্থাশীল থাকবেন, দেখবেন  যে কোন কাজ তখন সহজ হয়ে যাবে। মনোবল থাকলে অনেক অসাধ্য সাধন হয়ে যেতে পারে। একারনেই দেখা যায় অনেক দুর্বল প্রাণীও  শুধুমাত্র মনোবল আর ধের্য্য দিয়ে সফল হয়ে যায় সবলের উপর।


In our life mental strength is very important. When you have faith on yourself, you will see every work became easy for you. When you have mental strength, you can do any impossible job. That's we can see many weak animal wins with stronger one with only mental strength and patient.

Thursday, July 16, 2015

মানুষকে কাজে উৎসাহ দেয়া (Encourage people in work)



[English version has given below]

সবাই তাদের ক্যারিয়ারের কথা চিন্তা করে, ভালো বোনাসের কথা চিন্তা করে বা নিজের কাজের মানের কথা ভেবে হলেও যার যার সাধ্য মতোন চেষ্টা করে ভাল কাজ করার। আর যখন কেউ সেই কাজের প্রসংশা করে, তাহলে যে কাজটা করেছেন তার উৎসাহ বেড়ে যায়, দেখা যায় তখন কারো চাপে পড়ে নয়, নিজের মনের উৎসাহেই কাজ আরো সুন্দর আর সুষ্ঠু ভাবে করে। ফলে কাজের মান অনেক বেড়ে যায়, অনেক কম সময়ে তারা অনেক কাজ করে ফেলেন। সেই সাথে অনেক নতুন আইডিয়াও নিয়ে আসা হয় ঐ কাজে। শুধু কিছু ভাল কথার বিনিময়ে...

আর যদি কাউকে তার কাজের সৃক্রীতি দেয়া না হয়, তাহলে সেই লোক দেখা যায় তার কাজের মান আর ধরে রাখতে পারে না। আরো উন্নতি করা তো দূরের কথা। এতে তার নিজের ক্ষতি তো হয়ই সেই সাথে তার কোম্পানিরও ক্ষতি হয় (কাজ খারাপ হওয়ায়)

তাই আপনি যদি নিজের স্বার্থে কাউকে দিয়ে ভাল কাজ করিয়ে নিতে চান তো অবশ্যই তার কাজের ভাল দিকগুলোর প্রশংসা করুন। তাকে উত্সাহ দেবার জন্য পুরস্কৃত করুন। 


People do their job well by thinking of their career, bonus or to upgrade themselves. When they found, anyone praises about their work that increases their working effort many times. So, not only for work pressure, they do their best from their heart. That's why the job became much better and accurate. This increases their work value and they do much more work in less time. They also bring new idea in their work that means creativity increases. All these happen only for some good words...

If no one gives value of any good work, that worker can't keep their own work value and soon their job standers go low. They can't do well for themselves so not for their company.

So, for your own purpose, if you want good work, them give value of others good job. Try to give bonuses to increase their work value.


[June 27, 2007]

Wednesday, July 15, 2015

Online casino games in Finland


In Finland, free online casino games are becoming very popular now a day. There are many games you can play online, like slot casino games, casino table games, fighting games, myriad or other cool games. You can just play and enjoy on any site like netticasino Suomi. Your age must be 18+ and then you just have become a member of that place and you can start real money game. 

ফ্যামিলি এ্যালবাম (Family Album)



[English version has given below]

আগে এ্যালবাম বলতে বুঝতাম, এমন এক বই যেখানে ছবি তুলে রাখা হয়।

এখন অনলাইনে অনেক সাইটে ছবির এ্যালবাম রাখা যায়। আবার সেটা সবার সাথে শেয়ারও করা যায় সহজে।

কিছুদিন আগে আরেক ধরনের এ্যালবাম দেখলাম। গুলশান ১ চত্বরের দিকে যাচ্ছিলাম। দেখলাম রিক্সার পিছনে ছবি লাগানো। না না, নায়ক নায়িকার ছবি না। রিক্সাওয়ালা, তার বউ, বাচ্চা, বাবা-মা এর ছবি!

[২০ শে জুন, ২০০৭]

Previously we knew that album means a book, where we store our printed pictures.

Now a day we can found many web album on many sites. You can store your digital pictures over here and you can share them easily.

Few days back I have seen another kind of album. I was going towards Gulshan 1 circle. I saw some pictures are attached at the back side of a rickshaw. No those were not from any film's heroes. Those were (probably) rickshaw pullers wife, kid and parent's pictures.


[June 20, 2007]01

Tuesday, July 14, 2015

ম্যারাথন গল্পে ব্যস্ত (Busy with the Marathon story)

ছেলের ম্যারাথন গল্প শুনছি এখন। এই গল্প কয়েক ঘন্টা স্থায়ী হবার সম্ভাবনা। ঘুমিয়ে পরার আগ পর্যন্ত।  তাই আজ আর কিছু লিখা সম্ভব না :)


My son started his marathon story. This story may continue for hours, till he will fall in sleep. So, I can't write anything today :)

Monday, July 13, 2015

ওরা কোথা থেকে এসেছে? (They came from where?)


[English version has given below]

তখন '৮৮ এর বন্যা চলছে, রাস্তা তো ডুবেছেই, সেই সাথে আমাদের বাসার নীচ তলা হাটু পানিতে ডুবে গেছে। বলা বাহুল্য খাবার পানির রিসার্ভ ট্যাংকিও রেহাই পায়নি।

চারপাশে পানি, রাস্তায় নিয়মিত নৌকা চলাচল করছে। আমরা নৌকায় করে মেইন রোডে যাই।

অনেক কষ্টই সহ্য করা যায়, কিন্তু পানির কষ্ট সহ্য হয় না। তখন খাবার পানি যোগার করা ছিল সবচেয়ে কষ্টের। এসময় দেখতাম, ২০-২৫ বছরের ছেলেরা ট্রাকে করে বড় বড় ড্রামে পানি এনে মেইন রোড থেকে দিত। বাসা থেকে সবাই যার যার মতোন বালতি, হাড়ি নিয়ে সেই পানি যোগার করতো। ওদের ঐ পানি দিয়ে পুরো এলাকার লোক বেঁচে ছিল। 

আমি ভাবতাম এরা কারা? কথা থেকে পানি নিয়ে আসে?
আম্মা বললেন, এরা ভার্সিটির ছেলে, ওয়াসা থেকে পানি নিয়ে আসে সবার জন্য ...

[১৪ ই জুন, ২০০৭]

That was the time of flood from 1988. The flood water didn't cover the road only, also houses. Ground floor from our building was flooded with water near knee level. And you can guess our water reserve tank also get drown with this flood water.

Almost the whole city was get drown in to the water. The roads became the path of boats. We had to take boat to go the main road.

You know, we can adjust with many problems, but water problem. On those days, our main problem was to collect drinking water. The only source of clean water was from main road. Some 20 to 25 years boys use to bring trucks with big water drums of clean water. All the families had to collect them with their bucket bowl etc. The total area was lived on that water source.

I thought who are these boys? From where are they collecting water?
My mom replied, "They are from the University and bringing water for all from the Government water purifier system"


[June 14, 2007]

Sunday, July 12, 2015

ছাগলের গলার ঘন্টা (A bell hanging on a goat neck)

[English version has given below]

নিজেকে "ছাগলের গলার ঘন্টা" মনে হচ্ছে। "ছাগলের গলার ঘন্টা" এই বিষয়টা একটু ব্যাখ্যা করে দেই। অনেক আগে একটা টিভি সিরিয়াল দেখতাম। সেখানে একটি মেয়ে নতুন এক জায়গায় বিপদে পরে আসে, এক গাড়ির ড্রাইভার তাকে খুব সাহায্য করে নানা বিষয়ে। এতে মেয়ে ওই ছেলেটির প্রেমে পরে যায়। একদিন মেয়েটি একটি সুন্দর ঘন্টা কিনে আনে, গাড়ির ব্যাক ভিউ মিররের সাথে ঝুলানোর জন্য। ছেলেটি বিরক্ত সহকারী উপহারটি নেয়, এরপর একটি ছাগলের গলায় ঝুলিয়ে দেয়। মেয়েটি কাজ করছিল, আর পিছন থেকে শুনতে পাচ্ছিল ঘন্টাটি বাজছে, ও না দেখেই বলতে থাকে, "এটা এখানে বাজাচ্ছ কেন? ইত্যাদি ইত্যাদি" এদিকে এলাকার সবাই মেয়েটির কান্ডে হো হো হো করে হেসে ফেলে। মেয়েটি অবাক হয়ে পিছনে তাকিয়ে দেখে ছাগলটা গলায় ঘন্টা নিয়ে হাটছে। রাগে দু:খে মেয়েটি কেঁদে ফেলে। আসলে এলাকার সবাই জানে, ছেলেটি আরেকটি মেয়েকে ভালবাসে। 

একারনে, যখনি আমি কোনো কিছু ভুল বুঝি, বা যা ভেবেছিলাম বাস্তবে তার অন্যথা দেখি, তখনি নিজেকে এই ছাগলের ঘন্টা মনে হয়। আমি খুব ভাল  জানি যে আমি বোকা প্রকৃতির মানুষ। তবে বোকারো মা বাপ আছে, এখন মনে হচ্ছে আমার বোকামোর কোনো সীমা নেই। কি আর করা এই বোকা মাথা নিয়েই চলতে হবে, আর যা হবে তা মেনে নিতে হবে। সত্য মেনে নিয়ে কস্ট পাওয়া ভাল, মিথ্যাকে আশ্রয় করে সুখি হবার চেষ্টা করার চেয়ে। কারন শেষ পর্যন্ত মিথ্যা টিকে না।

I am feeling like an "A bell hanging on a goat neck". Let me explain you about this "A bell hanging on a goat neck". Long time back, I have seen in a TV serial about a girl, who came in a new place for some reason. A truck driver helped her in many ways. Because of his (Driver's) attitude the girl falls in love with him. She bought a small bell to hang it with the back view mirror of the truck. When she gave this to the boy, he took it. Then he hanged it on a goat shoulder. The girl was working and she heard the bell in ringing behind her. She smiled and without looking at it she started saying, "What are you ringing it here.... etc." But the local people burst out of laugh by watching this. Because all knew that the boy loves someone else for long time.

So, whenever I felt I guessed wrong or take something for me actually which is not mine, I felt I became the bell of the goat shoulder. Actually I knew that I am a stupid person. But now I think there is no limit of my stupidity. Well, what can I do, I have to live with it and accept whatever I got. It's better to get dishearten after knowing the truth but believing in a lie, because lie doesn't exist for long time.

Saturday, July 11, 2015

মেয়েরা নিরাপদ (Women are safe here)


[English version has given below]

মালয়েশিয়ায় দেখলাম, বাসে ছেলেরা কেউ গা ঘেষার চেষ্টা করছে না, রাস্তায় কেউ টিপ্পনি কাটছে না, কেউ বিরক্ত করার চেষ্টা করছে না, কেউ ভিড়ের সুযোগ নিচ্ছেনা...

মেয়েরা গভীর রাতেও (রাত ১২ থেকে ৩টা) খুব স্বাভাবিক ভাবে চলাচল করছে। বাস ড্রাইভার স্টপেজে নামিয়ে দিল, যেখানে এত রাতে কিছু নেই, মেয়ে একা খুব সাচ্ছন্দে হেটে তার গন্তব্যে চলে গেল, কারো কোন চিন্তা হলো বলে মনে হলো না ।

মাঝ রাতেও মেয়েরা মাঝ রাস্তায় পোল এর টাকা নিচ্ছে কাউন্টারে বসে।

আমি অবাক হয়ে গেলাম, মেয়েরা কোন যন্ত্রনা ছাড়া এতো স্বাভাবিক ভাবে চলাফেরা করতে পারে!!! খুবই ভাল লাগল।

[১৫ ই মে, ২০০৭]

In Malaysia, I have seen boys are to trying to touch girls body in the bus, on road no one is making any comment on girls, No one trying to annoy any girl, no one trying to take advantages in the crowd area...

Even at the mid night (12 am to 3 am) women walking on the road without any tension. When the bus driver dropped an woman, it was very dark night and no one was in that area, but the woman walked towards her destination without any hesitation. And everyone of that bus take it granted.

I have seen women are sitting at the pole counter at midnight and collecting the pole amount from the bus. And they are safe.

I really surprised to see, so woman can live a life without any disturbance on road!! I really felt good.


[May 15, 2007]

Friday, July 10, 2015

এবারের ইফতারের দাওয়াত (This year at Iftar)



[English version has given below]

এবারের রোজায় হঠাত করেই সবাইকে ইফতার খাওয়ানোর প্ল্যান করলাম, ভেবেছিলাম হাতে ৪ দিন আছে, ঠিকই সব ব্যবস্থা করতে পারব। সেই অনুসারে সবাইকে দাওয়াত দেয়া শুরু করলাম। দাওয়াত দেয়া শুরু করার পর থেকেই অসুস্থ হয়ে পরলাম। মাথা ব্যাথা নিয়েই কি কি মেনুতে দিব সেটা ঠিক করলাম। যেহেতু অসুস্থ তাই মেনু ছোট রেখে বাজার করলাম। 

মাথা ব্যাথা বেড়ে গেল। বাধ্য হয়ে পেইন কিলার আর রিলাক্জ্ন অসুধ খেয়ে ঘুমিয়ে থাকতে হলো। দাওয়াতের দিন মাথা ব্যথা কমলেও খুবই দুর্বল বোধ করছিলাম আর মাথা ঘুরছিল। তাই খুবই ধীরে ধীরে সব খাবার তৈরী শুরু করলাম। পরিকল্পনা মত শুধু গাজরের হালুয়া তৈরী করতে পারলাম। এরপর দেখি বিকাল হয়ে গিয়েছে আর সময় নেই। তাই বাধ্য হয়ে আগের সব মেনু বাদ দিয়ে নিজের রেসিপি দিয়ে সংক্ষিপ্ত করে রান্না শেষ করলাম। যে কারনে মুরগির গোশত মসলা দিয়ে মাখিয়ে রাখলেও একটা একটা করে ভাজার সময় আর হয়নি, এই কারনে সব মিশিয়ে একবারে তরকারী করলাম।

খাবার পরিবেশনের সময়ও সামনে থাকতে পারলাম না, ফলে সরবতে বরফ আর খাওয়ার পর সেভেন আপ দেয়া হলো না। সবাইকে বেড়ে খাওয়ানো দুরের কথা। দাওয়াত দিয়ে এতো খারাপ অবস্থায় আর কখনো পরিনি।

তারপরও  মেনু ছিল শুরুতে খেজুর, সরবত, নানা রকম ফল (ডালিম, পেয়ারা, আপেল, আঙ্গুর), এরপর সাদা পোলাও, স্টিম রাইস, মুরগির তরকারী, খাসীর গোশতের তরকারী, টমেটোর সালাদ আর গাজরের হালুয়া। 

খাবারের স্বাদ আমার আর আমার ছেলের ভালোই লেগেছে।

 All of a sudden we had to decide to invite everyone in Iftar this year. I thought I have 4 days to take preparation, so will be able to manage everything. As planned I started inviting everyone. After one day I fall in sick. Mostly my headache started. With this headache I had to plan for iftar menu and went to the market for shopping. I kept my menu little small as I wasn't feeling well.

After shopping, my headache increased terribly that I had to take pain killer and relaxation tab and fall in sleep. On the day my headache decreased but still I was very weak and felt my head is spinning. I started work very slowly that I could manage to make Mashed Carrot as I planned. Then I had to cancel my entire food plan but had to complete all dish with my own short cut recipe.

I couldn't stay with the guests when they were taking food. That's why couldn't sever ice and seven up. Anyway my menu was 1st course: date, Sarbat (Roohafja), fruits (guava, apple, pomegranate and red grapes). 2nd course: white polao, steam rice, chicken curry, mutton curry and tomato salad. Dessert: Sweet mashed carrot.

Thursday, July 9, 2015

যেখানেই যান মনে হবে শপিং সেন্টার (Where ever you go that looks like a shopping center)



[English version has given below]

মালয়েশিয়ায় কোথাও গেলে, প্রথমে বুঝতে একটু অসুবিধা হয়, যে ঠিক কোথায় এসেছি। কারন সব জায়গায়তেই এরা শপিংসেন্টার বানিয়ে রেখেছে।

বাসের টিকেট কাটতে বাস স্ট্যান্ডে গেলাম। ঢুকেই দেখলাম সারি সারি দোকান। নানা পন্যের। এরই মাঝে ঘুরে ঘুরে "গোপাল ভার" একটা দোকানের মতোন বক্সে নিয়ে গেলেন, সেটাই নাকি টিকেট কাউন্টার।

"কেবল কার" এ চড়তে গেলাম। সুন্দর পার্কের মতোন জায়গা। সেখানে কটেজের মত দোকানে সুন্দর সুন্দর জিনিস বিক্রি হচ্ছে। এই পার্ক মার্কেট পেরিয়ে বেশ খানিকটা এগিয়ে যাওয়ার পর কেবল কারে চড়ার ব্যবস্থা।

সাগরের মাঝে একটা দ্বীপ, তারমধ্যে কিভাবে যেন মিস্টি পানির হ্রদ তৈরি হয়েছে। হ্রদের পাশে একটা দোকান। পানিতে নামার নানা জিনিস পাওয়া যায়। টিকেটের (নৌকা ভাড়া নেয়ার) খোজ করাতে জানা গেল, সেটা আসলে টিকেট কাউন্টার।


In Malaysia, it is little difficult to understand where are you visiting. Because where ever you go, that looks like a shopping center.

We went to the bus stand to cut tickets to go to Langkawi Island. After reaching that place, I saw lots of shops with various kinds of things. We were walking through those shops and "Gopal Bhar" took us to a box type shop and said this is the ticket counter.

We went to ride on the Cable Car. This place is really beautiful. It is decorated like flower park and among them there are many shops looks like beautiful cottages with many beautiful things. We had to walk for some minutes to reach at the place from where we can start ridding on the Cable Car.

We went to an Island where we saw a sweet water lake in between the Island. Though the Island was surround with salt sea water. Beside the lake there was a shop with the things to enjoy water. We asked them, from where can we get a ticket to ride a boat? They replied this is the ticket counter.


[May 13, 2007]

Wednesday, July 8, 2015

সব কাজ বিছানায় (Everything on bed)

[English version has given below]

শাফিনকে (৬ বছর) বিছানায় খেলনা ওঠাতে বারন করেছি। ওর খেলনার কারনে বিছানার চাদর একদিনে ময়লা ময়লা হয়ে যায়। অখুশি হলেও শাফিন এটা মেনে নিয়েছে। 

গতকাল দেখি পুরানো পেন্সিল-রাবার  রাখার ব্যাগ (যথেষ্ট ময়লা) বিছানায় নিয়ে, সব বের করে ঐগুলো দিয়ে খেলছে। আমার কথা রেখেও তার খেলা সে খেলে যাচ্ছে। আবার বোঝালাম, দেখো ব্যাগটা কতো ময়লা, এটা আর বিছানায় তুলোনা। মাথা ঝাকিয়ে সায় দিল।

এবার রোজায় শাফিন রাতে আর ঘুমাচ্ছে না। আমি রাত ১০টার  দিকে টেবিলে একবাটি নুডলস আর এক বাটি চানাচুর মুড়ি রেখে শুয়ে পড়লাম। শাফিন মেঝেতে বসে খেলছিল। আমি ঘুমিয়ে পরেছিলাম, প্রায় এক ঘন্টা পর শাফিনের নড়াচড়ার কারনে ঘুম ভেঙ্গে গেল, দেখি ও খাবার বিছানায় নিয়ে এসেছে। তবে বাটির নিচে বুদ্ধি করে একটা বই দিয়ে নিয়েছে। আর পানি মগে না এনে একটা পানির বোতলে ভরে এনেছে। ওকে কিছু বলতে গেলে আমার ঘুম আরো নস্ট হবে, তাই আর কিছু বললাম না। 

I have asked Shafeen (6 years old) not to bring any toy on bed. Generally he plays on bed with his toys. Because of this nature of my son, my bed sheet became dirty within a day. Though he (Shafeen) didn't like my suggestion but agree.

Yesterday I saw him bring an old bag (dirty) of pencil and rubber and playing on the bed. I really got angry but didn't show him any anger. I make him understand that this is a dirty bag so he shouldn't bring that on the bed. He shakes his head, that means OK.

This year Shafeen couldn't sleep at night in this Ramadan month. So, I put one bowl of noodles and another bowl of puffed rice with chanachur on the table and went to bed after 10 pm. He (Shafeen) was playing on the floor. After an hour I could feel his movement on the bed. I saw he brought all the food on bed. This time he put a book under the bowl and brought water in a bottle not in a mug. I didn't say anything to him because I didn't want to ruin my sleep any more.

Tuesday, July 7, 2015

গরমের দেশে শীত (Feeling cold in a tropical country)


[English version has given below]

মালয়েশিয়া গরমের দেশ, এখানে শীতকাল নেই। তাই গরম জামার বালাই ও নেই। এমনই ধারনা ছিল আমার।

কুয়ালামপুর থেকে বাসে লংকাউই দ্বীপের কাছে যাব। ২ দিনের মতোন কাপড় গুছিয়ে নিলাম। বলা বাহুল্য, সবই গরমের দিনে পরার কাপড়।

বাসের সিট খুবই আরাম দায়ক, শুধু পিছনে হেলানো যায় তা না, পা লম্বা করে দেয়ার জন্য সিটের সাথে এক্সট্রা অংশ আছে। একরকম লম্বা হয়ে শুয়ে পড়লাম। এসি চলছে; আহা, কি আরাম। একটু পরেই বুঝলাম, আরামটা বেশি হয়ে যাচ্ছে। এসির ঠান্ডা এতো বেশি যে ১৫ মিনিটেই জমে গেলাম। কি করি? "জানতে চাই" অবস্থা বুঝে ওর একটা টি শার্ট দিল। ঐটাই চাদরের মতোন জরিয়ে অপেক্ষা করতে লাগলাম কখন এই যাত্রা শেষ হবে। "গোপাল ভার" বাস ড্রাইভারকে বলল এসি কমাতে। ড্রাইভার জানালো, এটা অটোমেটিক, কমানো যাবে না। আমি বাসের অন্য যাত্রীদের লক্ষ্য করলাম। ওরা দেখি সব গরম কাপড়, কম্বল নিয়ে ঘুমাচ্ছে। ওরা তো আগে থেকেই জানে। সাড়া রাত গেল এইভাবে। বাস যখন জেটিতে পৌছল, ভাবলাম দু:খের দিন, না না রাত শেষ হলো।

নাহ, তখনও আরেকটু বাকি ছিল। ফেরিতে উঠলাম। সুন্দর বসার সিট ভিতরে, বসলাম। হায় এ কোথায় আসলাম। এটাতে কি পেংগুইন বহন করা হয়? এখানে তো বাসের দ্বীগুন ঠান্ডা। কয়েক ঘন্টা কেমন কাটলো আমিই জানি। মেজাজ গরম করে দ্বীপে নামলাম। এই দ্বীপ জাদু জানে, ৫ মিনিটের মধ্যে আমার মন ভাল করে দিল।


Malaysia has no winter season. Whole year they enjoy summer. So, you don't need any warm cloth over there. That's what I thought...

From Kualalampur we had to go towards Langkawi Island. I packed cloths for two days. Well all are to enjoy summer only.

We get on a bus. Sits were very good and I enjoyed enough. I could bend the sit behind and it has some extra part at the front of the sit to keep legs. So, I almost lay down on the bus sit and started enjoying the journey by bus. The AC was giving us cold air in this hot season. I really started enjoying the bus environment. But soon I understood, the enjoyment seems breaking its border. The AC of the bus made the environment so cool that within 15 minutes I became fridge. I don't have warm cloth, now what to do. In this situation "Jante chai" gave me a t-shirt and I put it on me as blanket. "Gopal bhar" asked the bus driver to slow down the cooling machine. The driver replied, its automatic system, so he can't do anything about it.

I looked around to check the situation of other passengers, I found they are sleeping with warm cloths and blanket. They knew the bus condition so came here with full preparation. Whole night we had to pass time like this. In the morning we reached at the Ferry jetty. I thought our nightmare is over. Well we had still more to see.

We get on the ferry and go inside. It was nicely decorated with chairs. Good sitting arrangement. I guessed they made these ferry to travel with penguins, because inside the temperature was cooler than the bus. Allah knows how I have passed those hours. When I reached at the Island I was very much irritated with this journey. But the Island knows the magic, within 5 minutes it changed my mind with full pleasure.

[May 10, 2007]

Monday, July 6, 2015

কস্ট করে আর অশান্তি কিনতে চাইনা (I don't want to buy trouble)

[English version has given below]

আমি যখন যার জন্য যা করি, আন্তরিকতার সাথে পূর্ণ মনোযোগ দিয়েই করি। তারপরও যখন দেখি, মানুষ এখান থেকে অশান্তি তৈরী করছে, তখন আর তাদের জন্য কিছু করার আর আগ্রহ পাইনা। কি দরকার, অশান্তি বাড়ানোর, তারচেয়ে আমি এসব থেকে দুরে থাকি। থাকুক সবাই ভাল।

আমি তার কাছেই থাকতে চাই, যে আমাকে পেয়ে সুখী, অন্তত: অসুখী না। তাদের জন্যই বা তাদেরকে নিয়েই কাজ করতে চাই, যারা আমার কাজের মূল্য বুঝবে, অন্তত: বিরক্ত হবে না।

কস্ট করে আর অশান্তি কিনতে চাইনা। যে যার মত সুখে থাকুক।

Whenever I do anything for anyone, I do my best with full attention. But when I found people are making trouble from my work, that doesn't grow any interest to work with them again. Why should I want to have more trouble? I better stay away from them. Let them live happy.

I want to stay with those people, who are happy to have me, at least not unhappy to see me. I want to work with them who understand the value of my work, or at least won't disappoint.

I don't want to buy trouble; I want to let them live happy.

Sunday, July 5, 2015

অধিকাংশ ক্যাব চালক (Most of the Cab Driver)



[English version has given below]

মালয়েশিয়ায় যতবার ক্যাবে উঠেছি, বেশি ভাগই পেয়েছি ইন্ডিয়ান ক্যাব ড্রাইভার। এরা কয়েক পুরুষ ধরে রয়েছে মালয়েশিয়ায়। ভাষা ভুলে গেছে, এখন মালয় আর ইংলিশে কথা বলে। কেউ এসেছে পান্জাব থেকে, কেউ বা দক্ষিন ইন্ডিয়া থেকে। এদের কেউ কেউ দেশে যায় বিয়ে করতে। দেশী মেয়ে নাকি ভাল।

তবে সব দেশের ক্যাব চালকদের মতোন এদেরও বেশি কথা বলার রোগ আছে।

আমি ভাবলাম মালয়েশিয়া সাম্প্রতিক কালে উন্নতি করেছে, তাহলে এই ইন্ডিয়ানরা কেন এসেছিল এতো আগে?

[০৭ ই মে, ২০০৭]

In Malaysia, no matter how many times we took cab, found all of the drivers are from India. They are living in this country from their great grandfather. They forget the Indian language. Now they speak with Malay and English. Some of them go to India only to get marry, because Indian wives are good! And like all cab drivers they also have habit to talk nonstop.

I was thinking as I had heard that Malaysia became economically well in recent years, then why these Indian came here from such an ancient time...

[May 07, 2007]

Saturday, July 4, 2015

ঘুম (Sleep)

[English version has given below]

ঘুম কারো কারো জন্য কোনো বিষয়ই না। ১৪ ঘন্টা ঘুমানোর মনে হলো, আগামী কাল সারা রাত জাগতে হবে, তখনি বিছানায় শুয়ে আবার ঘুমিয়ে পরে। আমি এদের কাজ কারবার দেখে অবাক হয়ে যাই। 

এক সময় আমিও টানা ঘুমাতাম। আবার কাজ থাকলে টানা জাগতেও পারি। কিন্তু এখন ছেলে হবার পর, সে আর আমাকে শান্তিমত ঘুমাতে দেয়না। দেখা যায় ঘুমানোর আধা ঘন্টার মধ্যে ডেকে তোলে। বার বার এমন হতে হতে এখন নিজেই ঠিকমতো ঘুমাতে পারিনা।  যখন ছেলে ঘুমায় তখন হয়তো আমার কাজ থাকে, বা ৪ ঘন্টার মধ্যে নিজেরই ঘুম ভেঙ্গে যায়, আর ঘুমানো হয়না।

এদিকে ঘুমের বারোটা বাজার সাথে সাথে এখন আর কোনো কিছু ঠিক ভাবে চিন্তা করতে পারিনা। কাজকর্ম উল্টা পাল্টা হয়ে যায়, মনোযোগ দিতে পারিনা।

অনেক কস্ট করে মনকে স্থির রেখে আবার কাজে মনোযোগ দেই। কিন্তু ঘুম আর ঠিক মত হয়না। :(

For some people, sleeping isn't any big matter. After sleeping 14 hours, if they think next day they won't have any chance to sleep at night, they will go to bed and fall in sleep again. I really surprised with their ability.

Once I could sleep without any interval. And also can awake for days when needed. But after having a baby everything gets changed. My son sometimes woke up me within 30 minutes of sleeping. As he is doing this every day I sleeping cycle broke totally. When my son sleeps I can sleep but within 4 hours automatically I woke up and then can't sleep again.

After this disaster in sleep, my brain condition became terrible. Now a day I really felt trouble to do work with full concentration. I am trying my best to make everything normal again.

Friday, July 3, 2015

লংকাউই দ্বীপের সর্বোচ্চ চূড়ায় (At the highest pick of Langkawi Island)



[English version has given below]

লংকাউই দ্বীপে ১দিন বেশি ছিলাম, কারন ফেরার সময় ফেরির টিকেট পাইনি। বাড়তি দিনটাতে "গোপাল ভার" আর "জানতে চাই" চাইলো হারিয়ে যেতে (ম্যাপ নিয়ে)। নতুন জায়গার অন্বেষনে।

লংকাউই এর সর্বোচ্চ চুড়ায় একটা পাওয়ার হাউজ আছে। আমরা সেটা দেখার জন্য রওনা হলাম। মেইন রাস্তা থেকে একটা গেট দিয়ে পাহাড়ের ভিতর দিয়ে রাস্তা চলে গেছে। গেটে কোন গেইট ম্যান নেই। মনে হলো এই রাস্তায় কেউ খুব একটা আসে না। এখানে শুরু হলো গোপাল ভারের ড্রাইভিং এর পরীক্ষা। তেল যাতে শেষ হয়ে না যায়, গাড়ির এসি বন্ধ করে জানালা খুলে দেয়া হলো। 

পাহাড়ের গা বেয়ে, এঁকে বেঁকে আমরা চলা শুরু করলাম। রাস্তার একপাশে পাহাড় আর পাহাড়ের জংগল। অন্য পাশে খাদ। মাঝে মাঝে বৃষ্টির পানি পড়ার ছোট ছোট ঝরনা। মাঝে মাঝে পাখির ডাক শুনছিলাম। কোথাও কোথাও রাস্তা ভাংগা। আর মানুষের আনাগোনার কোন চিহ্ন দেখলাম না। রাস্তা ঘুরে ঘুরে উপরে উঠছে তো উঠছেই। সেই সাথে বাতাসের তিব্রতা বেড়েই চলেছে। আর দেখা যাচ্ছে লংকাউই দ্বীপ, পাহাড়ের উপর থেকে। 

অনেকক্ষন পরে একটা গাড়ি চোখে পড়ল, সেখানে বেশ কিছু সাদা চামড়ার টুরিস্ট। ওরা নাকি কি একটা পাখি দেখার জন্য দাড়িয়েছে। আমরা জানতে চাইলাম গাড়িতে পাহাড়ের একেবারে উপর পর্যন্ত যাওয়া যাবে? ওরা জানালো যাবে। আবার শুরু হলো চলা। একসময় চূড়ায় পৌছলাম। 

ওখান থেকে পুরো দ্বীপটা আর পাশের দেশের বর্ডার দেখা যাচ্ছিল। খুব সুন্দর লাগছিল চারিপাশ। সাগর, সাগরের বুকে ছোট ছোট বোট, শহরে বাতি জ্বলছে। আসলে শহরে তখন সুর্য ডুবে গেছে। আমরা পাহাড়ে বলে কুসুমের মতোন বিশাল সূর্যকে দেখেছি । সবাই এখানে কিছু সুন্দর ছবি তুলল। দেখতে চাইলে "গোপাল ভার" কে বলুন। ওর কাছে আছে। পরে মনে হলো রাস্তায় তো লাইট নেই। আলো থাকতে থাকতে আমাদের গিরিখাত বেয়ে নামতে হবে। আবার নামলাম। 

সত্যি মাঝে মাঝে এরকম সুন্দর জায়গায় যাওয়া উচিত।


We stayed at Langkawi Island one day extra, couldn't manage the return ticket of main land. In this extra day "Gopal Bhar" and "Jante chai" wanted to get lost in this Island (With a map). To hunt a new place where they never been (They had visited this Island for several times).

There is a power house at the highest pick of Langkawi Island (According to the map). From the main road we saw a narrow road started with a gate. The gate was open and there wasn't any security person. We guessed people don’t visit here regularly. Here the driving test started for "Gopal Bhar". To save fuel, we had turned off the AC and open all windows of the car.

Out journey started to running up to the hill, the road was narrow and it moves according to the hill's design. One side of the road has hill with its forest and other side of the road is open. We saw many small streams. We could hear the birds noise from the jungle. We had to drive very careful because in some areas roads were broken. There were no sign of human. We were just moving round the hill and going upwards. We could feel the force of wind is also becoming strong. And we could see the Langkawi Island like a eagle.

After driving for a long time, we saw a car, where some while people were gathered. They a strange bird, so stopped to see it again. We asked, can we go at the top with a car. They replied, yes. So, again our journey started and finally we reached at the end of the road.

We came out from the car and look around. We can see the whole Island including the border of neighbor country. The whole area was very beautiful. We could see the sea, small boats, lights of the town etc. The sun was looking like a egg yolk. Everyone took some beautiful pictures with the sun. Then we remember that we don't have any street light on the hilly road, so we have to go down before sunset. So, we returned.

I think everybody we visit Langkawi should visit this place.



[April 29, 2007]

Wednesday, July 1, 2015

এখন প্রতিদিন রোজা রাখবে বলেছে (Now he wants to make fast every day)

[English version has given below]

আমার ছেলে যখন প্রথম রোজা রেখেছে, আমি নানা ভাবে ওকে উত্সাহ দিয়েছি। যেমন সারাদিন ইন্টারনেট এ গেম খেলেছে, মোবাইল আর টিভিতেও নানা গেম খেলেছে। খেলনা দিয়ে খেলতে খেলতে আর ভাল না লাগায় আমার কাজের জিনিস ধরতে দিয়েছি ইচ্ছা মতো। ইফতারিতে বানিয়েছি নানা খাবার, যতটা পারি।... শাফিন মহাখুশি।

এখন প্রতিদিন রোজা রাখবে বলেছে। কিছুতেই খেতে চায়না। নানা ভাবে বোঝালাম, এখন বয়স কম, রোজা রাখতেই হবে এমন কোনো কথা নেই। শেষে বাধ্য হয়ে বললাম, এখন থেকে রোজা রাখলে আর খাতির হবে না। খাতির যা হবার প্রথম রোজায় হয়ে গিয়েছে। তোমাকে রোজা রেখে কাজ করতে হবে, পড়াশুনা করতে হবে. ইন্টারনেট পাবে না গেম খেলার জন্য। ও তাতেই রাজি, রোজা ও রাখবেই।

রোজা রাখার পর বলল পেট ব্যথা করছে। আমি বোঝালাম, অসুস্থ হলে রোজা না রাখলে ক্ষতি নেই। আগে সুস্থ হয়ে নাও, তারপর রোজা রেখ। এবার কাজ হলো।  আমিও হাফ ছেড়ে বাঁচলাম।

When Shafeen kept his first Fast, I have encouraged him in many ways to make it happen. To get rid of hunger I let him play game on internet, including mobile and TV game. When he felt bore with his toys, I let him play with my things. I made different kind of food in Iftar, as much as I could... Shafeen was very happy by having this much facilities.

Now he wants to make fast every day. I tried to make him understand he is still very young (6.5 years old) you are not bound to make Fast. Then I had to say, I won't give you facilities like you have in your first of Fasting. No internet and you have to work and study. He agreed and wanted to keep his Fast.

Next day in the morning my son said, he is feeling pain in his stomach. I make him understand, you are not bound to make fast when you are ill. It may harm for your body. Now he agreed not to take the Fast. Oh Allah saved me.