Monday, August 31, 2015

দোলনা (Swing)


[English version has given below]

নেপালের জাতীয় খেলা কি? আমি জানিনাহ। তবে, নেপাল ঘুরে মনে দোলনায় দোল খাওয়া। ছেলে, বুড়ো সকলেই দোল খায়। দোল খাওয়ার জন্য লাইন ধরে দাড়িয়ে থাকে।

শহরে, গ্রামে, জংগলে সব জায়গায় আছে এই দোলনা। বাড়ির উঠানে, মাঠে, ছাদে, পাহাড়ের গায়ে, পাহাড়ের চূড়ায়... কোথায় নেই। আমার ভয় হয় এটা দেখে যে, একবার ছিড়ে পড়লে পাহাড়ের খাদ বেয়ে সোজা নিচে চলে যেতে হবে। সকাল, বিকাল, সন্ধ্যা সব সময়ই আমি এদের দোল খেতে দেখেছি। আমাদের হোটেলের ছাদেও দেখি দোলনা আছে। নাগরকোট (মনে হয় ৭৫০০ফুট উচুতে) খুব সুন্দর জায়গায়, এই পাহাড়ের চূড়ায়ও আছে দোলনা।

আমাদের দেশে আমি দেখেছি, সাধারনত: গাছের সাথে দড়ি দিয়ে সাথে পিড়ি বা ছালা দিয়ে দোলনা বানায়। এদেরটা সম্পূর্ন অন্য রকম। ৪টা বাঁশ ২টা ২টা করে পাশাপাশি মাটিতে পুতে। তারপর মাঝখানে আড়াআড়ি করে বাঁশ বা লাঠি বা কাঠ বেধে তাতে দড়ি ঝুলায়, যেভাবে আমরা গাছের সাথে দড়ি বাঁধি। তারপর দোল খায়।

Swing from Nepal



Do you know, what is the national game of Nepal? I don't know. But after visiting their country I think it's swinging. All aged people from Nepal likes swinging from kid to grand pa. They even stand in queue to get on the swing.

You can see swing, all over the country from plain land to hill, village to town, house to hotel. I really get fear when I saw this at the top of the hill. If any how the rope gets tear people will from the hill directly to the ground. They keep swinging all over the day... from morning to evening. I have seen a swing even in our hotel, at the roof. Nagarkot has a beautiful tourist place, this is located may be at 7500 ft high than sea level. I have seen a swing over this hill too.

In our country, we generally make swing by swinging rope from the tree then add small wooden bench or tire with it. But here they use different technology. I put 4 bamboos and twist their head together and hang rope from there...

You can see the picture above...

[November 30, 2007]

Saturday, August 29, 2015

আমি মানুষ, আমাকে ভয় করো (I am human so fear me)

[English version has given below]

আমি অতিথি পরায়্নাতাকে খুব পছন্দ করি। তাই কেউ বাসায় আসলে তাকে সাধ্যমতো খাতির যত্ন করি (এবং অন্যের কাছ থেকেও তেমনটি আশা করি)। তারমানে এই না যে পৃথিবীর সব প্রাণী নিজেকে আমার ঘরের মেহমান মনে করবে। কিন্তু বাস্তব হলো ভিন্ন।

আমার অবর্তমানে পায়রা ঘরের জানালা দিয়ে ঢুকে বিছানায় বাসা বানিয়ে ডিম পেরেছিল। ইদুর নিয়মিত বাসায় আসে। আমাকে একটুও ভয় পায় না। যেন ঘরের লোক। রান্নাঘরের জানালা দিয়ে ঢুকে আমাকে পাশ কাটিয়ে যাওয়ার সময় আবার "কিচ" শব্দ করে হেলো বলে যায়। টিকটিকি সোজা রাস্তা দিয়ে হেটে যায়, আমি সামনে পরলেও সরে যায় না। আমি "হ্যাট হ্যাট" জাতীয় শব্দ করেও সরাতে পারিনা, তাই নিজেই রাস্তা ছেড়ে দিয়ে পাশ কাটিয়ে যাই।

আরে... এরা পেয়েছে কি? আমি মানুষ, আমাকে ভয় করো...

I like good hospitality, so whenever any person come to my house, I take care of them happily and look after them as well as possible (Same I expect from others). But that doesn’t mean ever single creature will think they are my guest. Let me explain…

In my absence pigeon got into my room and made nest. Even they lay egg over it. Everyday mouse enters my house through kitchen window. When it passed me, it makes sound like “Kich” like it saying hi to me. Lizard walks on the floor like my roommate. I try to make run by making sound like “Hat hat”, but didn’t work, so I had to give it space to walk and I put my leg at the side.
This is not good. Hey creatures, I am human… so fear me…

Thursday, August 27, 2015

পোখরা লেক (Pokhara lake)

Pokhara Lake with a tiny island

[English version has given below]

নেপালের যে জায়গাটা আমার সবচেয়ে ভালো লেগেছে সেটা হলো পোখরা লেক। আপনারা যদি নেপাল যাবার পরিকল্পনা কোনদিন করেন, তো আমি সাজেস্ট করবো পোখরা লেকের পাশে কোন হোটেল বা রিসোর্ট এ থাকার জন্য।
চমৎকার টলটলে পানির লেক, চার পাশে পাহাড়। মাঝখানে ছোট্ট একটা দ্বীপ। সেখানে আছে সুন্দর এক মন্দির। জায়গাটা পার্কের মতো সাজানো। সেই দ্বীপে আছে অসংখ্য পায়ড়া।

Me at Pokhara Lake Island

Temple on the island, Pokhara lake


আপনি ২০০ নেপালী রুপি দিয়ে নৌকায় করে দ্বীপে আসতে পারেন। দ্বীপ ঘোরা হলে নৌকা আপনাকে নিয়ে দ্বীপের চারপাশে চক্কর কেটে আবার পৌছে দিবে।





এখানে আপনি পাডেল নৌকা বা দাড় টানা নৌকা ভাড়া করে নিজেই চালাতে পারেন।

লেকের পাশেই আছে সুন্দর সুন্দর অসংখ্য হোটেল। আছে হ্যান্ডি ক্র‌্যাফট এর দোকান। দাম একটু বেশি। আর এক দোকান থেকে কিছু না কিনে কয়েক দোকানে ঘুরে দামদর করে কিনবেন। যেমন আমরা এক ধরনের শাল কিনলাম ১০০ নেপালী রুপি দিয়ে, অন্য এক দোকানে সেই শাল ৯০০ রুপি চাইল! নেপালি টুপি ৮০ রুপির কমে দিবে না। অথচ অন্য জায়গা থেকে আমরা ২০ রুপিতে কিনলাম।

আমরা গিয়েছিলাম পুজোর ছুটির সময়। তাই বেশির ভাগ দোকানিকে পেলাম মুসলিম, যারা পুজোতে দোকান খোলা রেখেছে।


In our Nepal tour the place I liked most is Pokhara Lake. If you are planning to visit Nepal, I will suggest you to take hotel beside this lake to stay. Here you will see beautiful water of the late, surround by the hills. At the middle of the lake you will see a tiny island. There is a temple with lots of pigeon on this island. The island is very beautiful like a park. You can hire a boat with 200 Nepali rupees; it will take to the island then will give you a ride on the lake and return. Here you can hire paddle or other boat too to ride it by yourself. 

Just beside the lake you will see beautiful hotels and resorts with many food courts. You will also find lots of handcraft shop. My suggestion is first look most of the shop and check the price. Here we bought a shoal with 100 rupee, but the next shop asked 900 rupee for the same cloth. They said they will not sale a Nepali cap below 80 rupee, but later we bought it from other place by 20 rupee.

We went there at Puja's time (Hindu celebration with their gods) time, so we found most of shop keepers are Muslim who kept open their shop in these holidays...


[November 28, 2007]

Wednesday, August 26, 2015

কাজের মেশিন (Machine to work)

[English version has given below]

আমাদের দেশে ঈদুল ফিতর এর একটা বিশেষ গান আছে, "ও মোর রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ" চাঁদ রাতে এই গান জোরে জোরে না বাজালে বা না গাইলে আমাদের ঈদ হয়না। তাই এবার আমার ছয় বছরের ছেলেকে বহু কষ্টে এই গানটা রোজার মধ্যে শিখালাম। অনেক চেষ্টার পর ও ২ লাইন শিখতে পারলো। আমি বোঝালাম, এই গান দিয়ে আমরা সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জানাবো। মাতৃভক্ত ছেলে ঈদের দিন অক্ষরে অক্ষরে মায়ের কথা শুনেছিল। 

ঈদের দিন যার সাথেই দেখা হচ্ছিল তাকেই ও দাড়িয়ে এই দুই লাইন গান শুনিয়েছে। এমনকি বাসায় যখন কাজের বুয়া আসলো ওকেও দাড়িয়ে গান শোনাতে লাগল, কারন আমি বলেছিলাম, সবাইকে শোনাতে। বুয়া এতো কিছু বোঝেনি, শাফিন গান শোনাচ্ছিল আর ও ওর মতো কাজে চলে গিয়েছিল।

আসলে, আমরা আমাদের চারপাশে যখন তাকাই তখন কিছু কিছু জিনিস পুরোপুরি উপেক্ষা করি। যেমন বাড়িতে কাজের মানুষ, রাস্তায় রিক্সাওয়ালা, অফিসে পিয়ন ইত্যাদি। এরা যেন কাজের মেশিন, মানুষ যখন বলি এদের আর গোনায় ধরিনা...

In our country we celebrate our Eid with an especial song, "O mor romjaner oi rojar sheshe elo khushir Eid (After the month of fast, happy day Eid has arrived)" before the Eid day we had to play or sing this song loudly, otherwise we don't feel its Eid day. So, I had taught my son this song. After trying hard he could learn two lines of it. I make his understand that we will give Eid greeting with song to everyone. But son followed my suggestion literally.

In the Eid day, my son went to every single person and sang this song. Even when the maid came to work, he went and started singing the son. Thought the maid didn't notice and continue her work.

This situation made me realize that actually when we think about human we forget some people to count. Like at home maid, on the road rickshaw puller, in office clerk etc. We take them as a working machine. So, when we say, all or us, we never count these people...

Monday, August 24, 2015

পাথরের নদী, পাথরের ঝর্ণা (River of stone, stone’s stream )


[English version has given below]

আগে থেকে ধারণা করে রেখেছিলাম, নেপালে গেলে ভারত-বাংলাদেশের অনেক বড় বড় নদীর উৎস ছোট ছোট প্রবল স্রোতের নদী দেখতে পাব। কিন্তু, যখন প্রথম নেপাল বর্ডার থেকে চলা শুরু করলাম বাসে, তখন প্রথমে দেখলাম, শুধু সমতলভূমি, মনে হলো,নেপালে বোধহয় পাহাড়িয়া এলাকা নেই! তারপর একপর্যায়ে পেলাম নদীর দেখা। কিন্তু একি অবস্থা? এক ফোটা পানি নেই, আর গভীরতা আমাদের দেশের মাঠের চেয়েও কম। তাহলে আমরা যে নদীতে এত পানি দেখি সেটা কোথ্থেকে আসে? এসব নদী জুড়ে শুধু পাথর আর পাথর। ছোট বড় নানা রংয়ের নানা আকারের নুড়ি পাথর বিছানো পুরো নদি জুড়ে। মাঝে মাঝে চোখ পড়ল পাথরের ঝড়না। সত্যিই পাথরের ঝর্ণা। পাহাড় থেকে নালার আকারে নুড়ি পাথর গড়িয়ে পাথরের নদীতে গিয়ে পড়েছে। রং প্রধানত: সাদা। তবে নীল আর হালকা লাল রংও চোখে পড়ল। বিশাল এই পাথরের নদী। কয়েক ঘন্টা ধরে আমাদের রাস্তা এই নদীর পাশ দিয়ে গিয়েছিল, তারপর জংগলে ঢুকে গিয়েছে।

রাস্তায় বড় বড় অনেক ব্রীজ পার হয়েছি যার নিচে শুধু পাথর আর বালি। কোন কোন জায়গায় এক পাশ দিয়ে নালার মতোন পানি গরিয়ে যাচ্ছে।

পাথর এতো পাওয়া যায় বলেই হয়তো রাস্তার পাশে জায়গায় জায়গায় দেখলাম, তারের চৌকোনা বক্স তৈরি করে তাতে পাথর ভরে পাথরের বাঁধ দেয়া হয়েছে। রাস্তার পাশের ড্রেন গুলো সিমেন্ট আর পাথর দিয়ে বানানো। নেপালে অনেক বাসা দেখেছি পাথরের। নেপাল থেকে শিলিগুড়িতে ফেরার পর শুনেছি, নেপাল থেকে ট্রাক ভরে ভরে পাথর আসে ভারতে, আর ভারত থেকে নেপালে যায় বহুকিছু।

[২৭ শে নভেম্বর, ২০০৭]

I was mentally prepared to see the Source Rivers (Small streams) of many big river's of Bangladesh.

But the reality was very surprising. When I started my journey by bus from India in Nepal first it was only plain I could see, seems there is no hilly area in Nepal! Then a big river started. But there were not a drop of water in that river, but only stones... in different size, shape and color. Through this river in several I could see small falls of stones! Literally these were falls of stones not water. From the hill stones are falling down (Not moving but the path was full of stones) to the stone's river. I could see this stone rive for long time, and then the river goes into the jungle...

All stones mainly were in white color, some were blue and red. Because of lots of stones we saw many roads where road side was blocked by stone cubes. Road side drains were made by stone and cement. I have seen many houses in Nepal made by stones.

Through my journey in Nepal I have seen most of river are dry, depth are less than any field. Some river contains lots of stone with a very tiny water flow.

Later when we return to Shiligury I heard that many trucks with stones come in India from Nepal and return with many other things...


[November 27, 2007]

Friday, August 21, 2015

জমি চাষে পরামর্শ (Suggestion on harvesting)

[English version has given below]

আমাদের দেশ হুজুগে মেতে উঠার দেশ... ভালো না মন্দ, লাভ জনক না ক্ষতিকর সেটা আমাদের বিবেচ্য বিষয় না, কে কি করলো, সবাই করছে, সুতরাং আমাকেও তা করতে হবে, এটাই আমাদের এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা।

বেশ আগের কথা, তখন এদেশে চলছিল টিভি এন্টেনার যুগ।  কে কিভাবে চালু করেছে জানিনাহ, ছাদে উঠলেই দেখতাম, সবাই এন্টেনার সাথে বোল, ঢাকনা যা পেয়েছে সব লাগিয়ে রেখেছে, এতে নাকি ছবি ভাল আসে... বলা বাহুল্য এতে আসলে কোনো পার্থক্য হয়নি, কিন্তু পুরো ঢাকা শহর একে অন্যকে দেখে এই কাজ করেছে। 

কৃষিতে কোনো ফসল চাষ করে কেউ লাভবান হলে, গণহারে আসে পাশের লোকজন সেই একই ফসলের চাষ শুরু করে দেয়, কোনো চিন্তা ভাবনা নেই যে এই ফসল এতো বেশি উত্পন্ন হলে আদৌ কোনো লাভ হবে কিনা, বা এতো ফসল রাখার কি ব্যবস্থা আছে....

এ কারনে আমি মনে করি আমাদের দেশের প্রতিটি ইঞ্চি জমি কেমন এবং এতে কোন ফসল কত পরিমানে উত্পন্ন হলে চাষীরা দাম পাবে এবং সংরক্ষন করতে পারবে, তার খুব ভাল একটা পরামর্শ থাকা উচিত। যাতে চাষীরা চাইলে এই পরামর্শ অনুসারে চলে লাভবান হবার চেষ্টা করতে পারে....

এই দল সব সময়ই মনিটর করবে, কোথায় কি ফসল কি পরিমানে  উত্পন্ন হচ্ছে আর তার বিক্রি এমন সংরক্ষণ এর কি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে...

In our country we have habit to follow others without think much about it. We don't care about the good or bad, profitable or not just follow what all are doing.

Let me give you an example that was TV Antenna's era. I don't know, who and how it has been started, but whenever I go to the roof I could see all houses has added bowl, or lids with the antenna for better picture. They thought these will work like telescope. But truth is it helped nothing on good picture. But who cares, everyone is doing so I can't be left out.

Same goes for our farmer’s brain. If anyone made any crop and get good profit, everyone will start producing it. They won't think if they grow this way huge amount of same crop then how it will effect on price or how to store the extra (Which they might not able to sale) part of it.

So, I think, we should have a good suggestion board for farmers that in which kind of soil or in which area what kind of crop can be produce in which amount. So, that if any farmer wants can follow the suggestion and get benefited.

This team will always monitor how much crop has been produced in the land and how it has been distributed and stored...

Thursday, August 20, 2015

ভিন্ন দেশ, ভিন্ন ভাষা (Different country, different language)

[English version has given below]

আপনি যদি কখনও শিলিগুড়িতে যান, তাহলে দিব্যি বাংলায় কথা বলতে পারবেন।
দার্জিলিংয়ের মানুষ হিন্দি বুঝতে পারে।
নেপালে গেলে ইংলিশে কথা বলতে পারবেন, সেখানে দেখা গেছে হিন্দি কম বোঝে। নেপালের শিক্ষিতের হার বোধ হয় বেশি। আমাদের এক সহযাত্রী এক টোকাই কে জি্গ্যেস করলেন কি নাম, ইংলিশে সে উত্তর দিতে পারল। তারপর কথায় কথায় জানা গেল, সে কলেজে পড়ে! 

নেপালি ভাষার অনেক শব্দ অবিকল বাংলার মতোন। এক জায়গায় চা খাবার পর বড় নোট দিলাম, সে আকার ইংগিতে জানালো ভাংতি নেই। তারপর সে তার ছেলেকে বলল "খুচরা" করে আনতে। আমিও বললাম হা খুচরা লাগবে। সেও অবাক হলো আমার মুখে এই শব্দ শুনে।


If you go to Siliguri (India), you can speak in Bangla like Bangladesh. People from Darjeeling can understand Hindi. If you go to Nepal, you can speak in English. I have seen very few people understand Hindi over there.

May be Nepal has good number of literate people than other neighbor country. In our travel one of our tour mate asked name to a street boy and that boy surprised us by answering us with English. Later we got to know that boy studying in a college.

There are many words in Nepali language are same as Bangla. Like one day I took a cup of tea in a restaurant in Nepal. Then I gave a big note to the shop keeper to get the changes. He said he doesn't have that many changes, so he asked his kid to bring some small notes (In bangla "Khuchra"). I said, yes I need those "Khuchra" note (Changes). The shop keeper really surprised to see that in Bangla and Nepali we are using same word.

[November 22, 2007]

Wednesday, August 19, 2015

নতুন পথ (New road)

ভয়, সন্দেহ, জড়তা, আশংকা, লজ্জা এমনি কত কিছুইনা আবর্জনার মতো আমাদের পা আঁকড়ে ধরে থাকে। একটু সাহস আর শক্তি সঞ্চয় করে যদি এসবের বাইরে এক পা ফেলেন, আপনি বুঝবেন পৃথিবীটা যতটা কঠিন ভাবছেন, হয়তো সব সময় আপনার জন্য তা নয়। ভাগ্য হয়তো এখনও আপনাকে পুরোপুরি ছেড়ে যায়নি... দেখুন না একবার এগিয়ে... হয়তো আপনার চলার সাথে সাথে নতুন পথের সৃষ্টি হবে....

Fear, doubt, shyness etc holds our legs just like dirt. If you just could manage some strength and bravery to step across this dirt of your life, you may found the world isn't that hard, as it always was with you. May be your fortune still with you... just keeping trying... maybe you will create new path in your life... 

Saturday, August 15, 2015

মোমো (Momo)


[English version has given below]

দার্জিলিং আর নেপালে এক ধরনের খাবার পাওয়া যায়। এর নাম মোমো। দেখতে অনেকটা পিঠার মতোন। দার্জিলিংয়ের রক গার্ডেনে প্রথম খেলাম। দোকানের সামনে বসেই মেয়েরা ছোট ছোট গোল গোল করে রুটি বানাচ্ছে, তারপর ভিতরে পুর দিচ্ছে (পরে জীপ ড্রাইভার বলেছিল, ইশটুশ ফল দেয়), এরপর পুর দেয়া রুটির পিঠাগুলো স্টীম করে প্লেটে সাজিয়ে দিয়ে লাল মরিচের চাটনীর (খুব একটা ঝাল না) সাথে পরিবেশন। ১০ রুপিতে ১০টা মোমো। খেতে খুব মজা। পরবর্তিতে বাসায় সবুজ সবজি ভাজি দিয়ে পুর বানিয়ে মোমো বানানোর চেষ্টা করেছিলাম, খেতে দার্জিলিংয়ের মোমো এর মতো না হলেও ভালোই হয়েছিল। 

নেপালের কাঠমান্ডুতে আরেকদিন খেলাম এই মোমো, মেনু দেখে এবার ফ্রাই মোমো অর্ডার দিলাম। ভাবলাম একটু অন্যরকমও টেস্ট করি। ফলাফল ভালো হয়নি। ফ্রাই মোমো খেতে ভাল লাগল না।


In Darjeeling and Nepal there is a common food, named Momo. It's kind of pan cake. We had tasted this food first at Rock Garden in Darjeeling. In front of the food court few girls sat and were making very small size rooti. Then they fold it by giving some green colored food inside it. Later our jeep driver told us they add Ishtush fruit inside it. Then those folded rooti steamed and serve it with red chili (Not to spicy) sauce. It was very delicious. We gave 10 Rupi for 10 Momo. Later at home I tried to make Momo with green vegetables and was tasted good.

At Kathmandu, Nepal we found Momo in every restaurant. This time I thought we should try something new... so I ordered fry Momo. Oh Allah it tasted very poor. Steamed one was the best....


[November 20, 2007]

Friday, August 14, 2015

খেলার জায়গা আছে? (Is there any space to play?)


[English version has given below]

শাফিনকে নিয়ে অনেক দিন কোথাও বেড়ানো হয়না, তাই কাজে কর্মে কোথাও গেলে ওকে সাথে নিতে চাই। আর কিছু না হোক, একটু ঘুরাফিরা তো হবে। কিন্তু শাফিন ও এসব বড়দের জায়গায় যেতে যেতে বিরক্ত। তাই কোথাও নিচে চাইলে বলে, ওখানে কি খেলার জায়গা আছে? যদি বলি "না", ও বলে, "তাহলে আমাকে রেখে যাও..."
আমার এখন আর ওকে ফেলে একা কোথায় যেতে ভাল লাগে না। তাই আজ রীতিমত জোর করে সাথে নিলাম।  ফলাফল হলো, ও নিজের পছন্দ মতো চিপস আর চকলেট কিনতে পারলো, কেক খেতে পারলো আর বোনাস হিসাবে একটা অকেজো গাড়ি নিয়ে খেলতে পারল। 

ও খুব খুশি। আমাকে বলল, এখন থেকে ক্ষুধা লাগলে আমরা এই দোকানেই যাব, তাহলে খাওয়ার পাশাপাশি গাড়িও চালাতে পারবে...

I didn't go out (For travel) with Shafeen (My 6 years old son) for long time. So, whenever I go out for work I try to take Shafeen with me. At least it will be kind of outing. But Shafeen became bore with these places. So, whenever I asked him to go with me, he first ask me, is there any space to play? If I reply "No", he wants to stay home.

But I don't want to go alone. So, today force him to go with me. It became really beneficial for him. He could buy his favorite chips and chocolate, eat cake and play with an old car (Not working).

He really became happy and said to me, "From now on, if we became hungry we will go to that place and will eat and play with the real car...."

Thursday, August 13, 2015

বাসের জানালা দিয়ে নেপাল (Nepal, from the window of our bus)


[English version has given below]

কাকরভিটা (ভারত নেপাল সীমান্ত) থেকে পোখরা প্রায় ৪৫০ কি:মি: পথ। ভোর ৪টায় রওনা দিয়ে রাত ৮:৩০ এ পৌছলাম। আর এই দীর্ঘ বাস ভ্রমনের মধ্য দিয়েই নেপাল সম্পর্কে প্রাথমিক ধারনা পেলাম। যেমন:

- নেপালের লোকজন খুব ভোরে মর্নিং ওয়াক করতে পছন্দ করে, আমি সূর্য ওঠার আগে থেকেই দেখলাম দলে দলে লোক রাস্তা দিয়ে দৌড়াচ্ছে।

- গ্রামের অনেক মানুষ সাইকেলে চলাচলে অভ্যস্ত। একবার আমাদের বাস রাস্তা আটকা পড়ল এক টেম্পু আর সাইকেল আরোহীর গন্ডগোলের কারনে।

- এই রুটে সব একই ধরনের বাস চলাচল করে, যেগুলোর সামনের দিকে না বসলে প্রচন্ড ঝাকুনিতে হাড় মাংস মোটামুটি এক হয়ে যাবার সম্ভাবনা আছে। কারন আমার ধারনা পিছনের চাকায় এরা স্প্রিং দেয়ার প্রয়োজন বোধ করেনি।

- সত্য কলসি নামের এক বিশাল সেতু পার হতে হয়, বিশাল সেতু মানে বিশাল এক নদী পার হতে হয়। যার স্রোত অনেক বেশি। সেতুটা আবার এল শেপ। মাঝের জয়েন্টটা বোধহয় দ্বীপ।

- রাস্তাটা কয়েকবার জংগলের মাঝ দিয়ে চলে গিয়েছে। তবে বানর ছাড়া আর কিছু সামনে আসেনি।

- অধিকাংশ বাড়িই দোতলা। সেটা, ইটের, মাটির বা কুড়ে ঘর যাই হোক না কেন।

- পাহাড়ের কাছের এলাকায় প্রায়ই পাহাড়ি ঢল বা ঝড়না নেমে রাস্তা ভেংগে দিয়েছে।

- মানুষরা বেশ পোশাক সচেতন। গ্রামের মেয়ে জিনস, ম্যাক্সি, স্কার্ট পরে চলাফেরা করছে

- মেয়েরা বেশ সচ্ছন্দে বাস থামাচ্ছে জংগলের মাঝে, ফ্রী হয়ে নেবার জন্য

[১৬ ই নভেম্বর, ২০০৭]

We had to cross 450 km road from Kakarbhitta (India-Nepal border area) to Pokhra in Nepal. We started at 4 am in the morning and reached at Pokhra at 8.30 pm and with this long bus tour I had got my first idea about Nepal. Like:

- People from Nepal likes morning walk very much. Because I have seen before sunrise lots of people come out from home and running beside the roads.

- Villagers favorite vehicle is bicycle. Even once our bus had to stop because of a bicycle and Tempu (Auto rickshaw) problem. 

- In this route almost all buses are same. If you can't sit at the beginning rows your bones may definitely broken by the jerking of the road. They bus manufacture company may forget to add spring on the back wheel.

- We found a very long river bridge named "Shatya kalsi". Long bridge means very Wide River with heavy current. The interesting point is this bridge is 'L' shaped. At the joint of the L there might be something like island.

- Few times we had to cross jungle, though we saw only monkeys.

- Most of the houses are 2 storied building. No matter in which material they build in. Like wooden, mud, cement etc.

- We saw near hilly area, roads are broken probably by the high current water came from the hill.

- People from Nepal are very well dressed. Even in the village girls are wearing skirt, maxi, jeans etc.

- Girls don't feel hesitate to stop the bus at the jungle to become fresh...


[November 16, 2007]

Tuesday, August 11, 2015

ভাল মানুষ (Good human being)

[English version has given below]

আমার ছেলেকে যতদুর সম্ভব বুঝিয়ে ভাল মানুষ হিসাবে বড় করার চেষ্টা করছি। তারপরও ও যখন আসে পাশের নানা জিনিস থেকে খারাপ কাজটা অনুসরন করার চেষ্টা করে, তখন মনে মনে ভেঙে পরি, ও কি তাহলে শেষ পর্যন্ত খারাপ জিনিসগুলোই পছন্দ করবে? মায়ের কথা মেনে চলার চেষ্টা করবে না? এখন ও ছোট, তাই যা খুশি তাই করতে পারেনা। কিন্তু একটা সময় ও বড় হবে, তখন আমার আর তেমন প্রভাব বা ক্ষমতা থাকবে না ওকে ঠিক মতো চালানোর। তখন কি হবে? ও হয়তো ভাববে, বোকা মায়ের কথা শোনার দরকার নেই, সামনে শুধু একটু ভাল হয়ে থাকলেই হলো। নাকি সুন্দর মানুষ হবে, যা দেখে আমি প্রশান্তিতে থাকব। আল্লাহ ভরসা.... আমি আমার সাধ্য মতো চেষ্টা চালিয়ে যাব। 

I am trying my best to raise my son as a good human being. But even that when I see he is following his surroundings and picking up the bad attitude, really break my heart. Will he always like the bad things? Won't he try following his mom's advice? He is only 6 years old now, so he can't do whatever he wants, but he will grow up. At some point, I won't have any power to make him do anything. He has to go by his own decision. Will he then ignore all of his mom's suggestion? Or will become a good man, that his mom can proud of. I am depending on Allah... and will try my best.

Monday, August 10, 2015

টাইগার হিল (Tiger Hill)


[English version has given below]

বাংলাদেশের সুন্দরবনে টাইগার পয়েন্ট আছে, যেখানে বাঘের আনাগোনা বেশি। দার্জিলিং এর টাইগার হিল একটু ভিন্ন কারনে খ্যাত... বেশ খ্যাত তাই ভোর ৪টায় যখন রওনা হলাম, তখন দেখলাম একের পর এক জীপ রওনা হয়েছে টাইগার হিলের পথে ডার্জিলিং থেকে। বিশাল জিপের লাইন। রাস্তায় জ্যাম হয়ে যাওয়ায় আমরা একটু হেটে জীপে উঠলাম। রাতের অন্ধকারে পিছনে যতদূর দেখা গেল শুধু গাড়ির হেড লাইটের সারি। পাহাড়ি রাস্তা দিয়ে একে বেকে আমরা উঠলাম টাইগার হিলে। এখানেও গাড়ির জ্যাম তাই অনেক খানি পথ পায়ে হেটে উঠতে হলো। এর স্মৃতি চিহ্ন স্বরুপ পা মচকে ফেললাম, তারপরও থামার উপায় নেই, সূর্য উঠার আগে আমাদের পাহাড়ের মাথায় উঠতে হবে।

২০রুপি দিয়ে টিকেট কেটে ঢুকলাম, টিকিট দেখালে এক কাপ (প্লাস্টিকের) চা ফ্রী। চা হাতে নিয়ে ভিড়ে ঢাক্কা খেয়ে হাত পুড়ালাম। তাও বারান্দায় যেতে হবে। নাহলে কাঞ্চন জংগা (বানানের জন্য মাফ করুন) কিভাবে দেখব?

ঠেলে ঠুলে বারান্দায় গেলাম। রেলিংয়ের কাছে যেতে পারিনি তবে ভাল একটা জায়গায় দাড়ালাম বাঁ দিকে, যেখান থেকে কান্চন জংগা আর সূর্য দেখা যায়। এরপর শুরু হলো অপেক্ষার পালা। কখন সূর্য ওঠে...

গাইডদের মুখে শুনেছি, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কাঞ্চন জংগা (বানানের জন্য মাফ করবেন) ৭বারের বার দেখতে পেয়েছিলেন। আমরা সম্ভবত: তার চেয়ে বেশি সৌভাগ্যবান।

টাইগার হিলের বারান্দা থেকে দেখলাম সুর্য ওঠার আগে ভোরের আলোয় ছায়ার মতোন কাঞ্চন জংগা
তারপর আলো বাড়ার সাথে সাথে দেখলাম সাদা বরফে ঢাকা চূড়া। সু্র্য ওঠার ঠিক আগ মুহুর্তে চূড়াটা গোলাপি রংয়ে রঙিন হয়ে গেল। সুর্য ওঠার পর হলো লাল। সুর্য যখন পুরোপুরি উঠে গেল তখন উজ্জল হলুদ আলোয় আলোকিত হয়ে গেল।

ঠিক একই রকম ঘটলে পর পর আসে পাশের চূড়াগূলোতে। সেগুলো হলো অর্ন্যপূর্ণা, আরো কি কি যেন নামের চূড়া। এই টাইগার হিল থেকেই দেখলাম এভারেস্টের চূড়া। সাদা বরফে মোড়া কাঞ্চন জংগা থেকে আরো বাঁ দিকে। ভারত থেকেও যে এভারেস্ট দেখা যায় এটা জানা ছিল না।

পরে ডার্জিলিং শহরে ফিরেও দেখতে পেলাম সাদা উজ্জল কাঞ্চন জংগার চূড়া। মনে হলো হোটেলের জানালা দিয়েও পুরো ঘটনা দেখতে পারতাম...

আমাদের গাইড বললেন, সে ৭ বছর ধরে এখানে আসছে, কিন্তু এতো স্পষ্ট আগে কখনও দেখনি।

[১৩ ই নভেম্বর, ২০০৭]


In Bangladesh there is a place in Sundarban called Tiger Point, where tigers are very much available. In Darjeeling, Tiger Hill is well known for totally different reason. We really surprise when we saw at 4 am all Jeeps are moving only to the Tiger Point from Darjeeling. As traffic jam was huge, we had to walk a little to reach at our booked Jeep. When we started going on the hilly road we can see only head lights as long as we can see the road. At Tiger Point again felt very crowded with jeeps. So, we had to walk to climb up to the pick. And here I got pain on my leg. But couldn't stop. We had to reach there before sun rise.

We paid 20 rupee for each ticket and when we show it at Tiger Hill, they give us a plastic cup of tea free (not bad). I hold the tea cup then try to make place in the crowd to see well the Kangchenjunga, and burn my hand with hot tea. But could make place on the balcony. I found a place from where we can see both the sun and the Kangchenjunga. Then started waiting for the sun rise.

From our guide we get to know that to see the Kangchenjunga, Rabindranath Tagore had visit Darjeeling for 7 times. Well we found we were lucky than him.

From the balcony I had watched the Kangchenjunga like shadow before the sunrise. Then light increased so we could see the white snow over the pick of the Kangchenjunga. Just before the sun rise the pick became pink colored. When the sun rises and its first light fall on the pick of Kangchenjunga it became red. After the full sun rise, the total pick became bright yellow.

Same thing happen with the other picks. They were Annapurna or others (Now forget the names). From the Tiger Hill, I could first see the pick of the Mount Everest. I didn't know that we could see the Mount Everest from India.

When we reached at Darjeeling town, we could see the Kangchenjunga very clear. I guess we could see the total view from our hotel window. Our guide said, he visited this place for 7 years, but never could see this view so clearly like today...


[November 13, 2007]

Friday, August 7, 2015

নতুন নতুন ভিডিও... (New videos)

[English version has given below]

শাফিনের (আমার ৬ বছরের ছেলে) নতুন খেলা হয়েছে ভিডিও করা। বার বার নিজের ডিগবাজির ভিডিও করে দেখাচ্ছিল, আমি বললাম, এক জিনিস বার বার দেখতে ভালো লাগেনা, নতুন কিছু করলে দেখাবে।  আমি ভেবেছিলাম, এবার দেখার হাত থেকে ছুটি পাবো, কিন্তু আমার ধারনা ভুল ছিল। ও এখন ওর নানা রকম দুষ্টুমি একেকবার একেকটা করে ভিডিও করছে আর আমাকে দেখাচ্ছে।  একবার ওর স্যান্ডেল তুলে ভিডিও করেও দেখালো.... কখনো গান গেয়ে, কখনো জিভ দেখিয়ে, কখনো ভয় দেখিয়ে ইত্যাদি চলছে। এখন বুঝতে পারছি, কেন সিনেমা বানানোর নেশা একবার কাউকে পেলে আর যায় না...

Shafeen's (My 6 year’s old son) new game is making video with my cell phone. First he was making same video again and again. I said, I won't see same thing again, make something new. I thought this way I can get rid of this pain (Watching his newly recorded video), but I was wrong. Now he is coming to me after every 2 minutes with a new kind of recording. Like showing his tongue, showing home, showing my foot, once showed his slippers too. Now I get the point, why people who started making film, never stops....

Thursday, August 6, 2015

টয় ট্রেন (Toy train)



[English version has given below]

এর নাম টয় ট্রেইন নাম হলেও আমার কাছে যথেস্ট বড় মনে হয়েছে এই রেলগাড়িকে।

শিলিগুড়ি থেকে দার্জিলিংয়ের পথে রওনা হবার পর রাস্তার পাশে চোখে পড়ল, রেল লাইনের মতোন লাইন। তবে রাস্তার এতো কাছে যে গাড়ি অন্য গাড়িকে সাইড দেবার সময় এই লাইনের উপর উঠে যাচ্ছে। হকাররাও দিব্বি এর উপর বসে পশার সাজিয়ে বিক্রি করছে। জীপের ড্রাইভার বলল, এতে কয়লা টানা হয়। এই লাইন ডার্জিলিং পর্যন্ত গিয়েছে। গাইড জানলো, এর নাম টয় ট্রেইন। এতে ৮ ঘন্টা লাগে শিলিগুড়ি থেকে দার্জিলিং যেতে।

মাঝে মাঝে ট্রেইনের লাইন রাস্তা ক্রস করেছে। তবে সেই ক্রসিংয়ের কোন গেইট নেই, কোন সিগনাল নেই। যেন ড্রাভারদের দায়িত্ব সব কিছু দেখে চলা (যে জোরে গাড়ি চালিয়েছে, কতটুকু দেখে সন্দেহ আছে).
এক সময় চোখে পড়ল ট্রেইন, ৮/১০ জনে ৪/৫ টি বগি নিয়ে যাচ্ছে। খুব মন চেয়েছিল এতে চড়তে, সুযোগ হয়নি।
দার্জিলিং যাবার পর মনে হলো এমন উঁচু-খাঁড়া পাহাড় বেয়ে ঐ ট্রেইন আসে কিভাবে? এখনও ধারনা হয়নি।

দার্জিলিংয়ের উপর এর স্টেশন। এটি বিশ্বের তৃতীয় উঁচুতে অবস্থিত রেল স্টেশন। আগে এক নম্বরে ছিল। 
দার্জিলিংয়ের রাস্তা এমনিতেও সরু, তার উপর পাশ দিয়ে এই ট্রেইন লাইন। দুটো একসাথে কিভাবে ম্যানেজ করে সেটা নিয়ে আর গবেষনার সুযোগ হয়নি।

রেল স্টেশনটা ছোট আর এর চারিদিকে কোন দেয়াল নেই। তাই পুরো স্টেশন, টিকেট কাউন্টার সবকিছুই রাস্তায় জীপ থেকে দেখতে পেয়েছিলাম।


Though it's called "Toy Train", I think it’s big enough.

When we start from Shiliguri to Darjeeling, we saw lines like train line (Smaller than regular train line).  But it was very near or just beside the road, so whenever a jeep overtakes other vehicle, it goes on this line. Even road side sellers also sit on this line with their goods to sale. Our jeep driver said, this train used to carry coil to Darjeeling and our guide said, this is the Toy Train. It moves very slowly that it took 8 hours to reach at Darjeeling.

We saw on our journey that this train line crossed the road sometimes on its way. But there is no traffic signal or rail gate for security. Like all duties are on the driver's shoulder, they have to be careful to avoid accident with the train (But our jeep run very fast, I doubt about their concern about the train.). But couldn't get chance to see how they actually manage.

The rail station is very small and it has no boundary wall. So, from our jeep we could see the ticket counter and the whole station. This is the third station standing at high pick. The roads of the Darjeeling are very narrow, and it has line for Toy Train, we really couldn't understand how they manage when both vehicle moves at a time.

[November 09, 2007]

Wednesday, August 5, 2015

টাকা পয়সা বাঁচানোর যতই চেষ্টা করিনা কেন (No matter how hard I try to save money)

[English version has given below]

আমি জীবনে টাকা পয়সা বাঁচানোর যতই চেষ্টা করিনা কেন, কিছুতেই এ বিষয়ে সফল হইনা, কিভাবে যেন আরো বেশি খরচ হয়ে যায়। মোটেও আমার গাফিলতির কারনে নয়, নিয়তি এমন সব পরিস্থিতির সৃষ্টি করে যে আমি খরচ করতে বাধ্য হই । হয়তো ধনী হওয়া আমার কপালে নেই, তাই বলে যা আয় করব সেখান থেকেও বাচাতে পারবো না? সব সময়ই টাকা পয়সার টানাটানিতে থাকতে হবে? অথবা সব সময়ই দু হাত ভরে খরচ করে যেতে হবে... আর যখন টাকা শেষ হয়ে যাবে?  থাক, পরেরটা পরে দেখা যাবে।...

In my life, several times I tried to save money, but failed. And it wasn't my fault, situations arises like that I had to pay more. May be I won't be rich ever, but whatever I earn, can't I save some? Do I always spend life by counting money? Or maybe I have to spend life by expending a lot. What will happen if I lose all money? Well lets my destiny fix that...

Tuesday, August 4, 2015

মেঘের উপর শহর (The town up on the cloud)



[English version has given below]

দার্জিলিং শহরটা খুব সম্ভবত: ৬০০০ফুট উঁচুতে অবস্থিত। তার আগে ছোট ছোট আরো ২টা শহর পার হতে হয়। এই শহর গুলোও পাহাড়ের উপর।

মাঝে মাঝে মেঘ এসে ঘরে, রাস্তায় ঘিরে ফেলে, আবার চলে যায়।

রাস্তার পার ঘেষে বাড়ি। আপনার মনে হবে একতলা বাড়ি। আসলে আপনি হয়তো ৫তলার ঘর দেখছেন। সিঁড়ি বেয়ে পাহাড়ের গা দিয়ে নিচের তলায় যেতে হয়। পুরো শহরটাই পাহাড়ের গায়ে। শহরের রাস্তা গুলো উচু নিচু ঢেউ খেলানো। মাঝে মাঝে সরু পায়েচলা পথে পাহাড়ের নিচে বা উপরে উঠে গেছে। সেখানে পাকা বাড়ি।

রাতের বেলায় যদি আপনি উপরের দিকে তাকান তো তারার মেলা দেখতে পাবেন। আবার যদি নিচের দিকে তাকান তবুও তারার মেলা দেখবেন। আসলে সেগুলো হলো পাহাড়ের গায়ে লেগে থাকা বাড়ি ঘরের বাতি।

আমাদের সাথের পর্যটকরা বলছিলেন, তারা আগে দার্জিলিং এর কথা শুনেছেন, কিন্তু নিজে না এলে কোনদিন বুঝতেন না শহরটা এই রকম।


Darjeeling town may be at 6000 ft high. Before reached at this town we had to pass two smaller towns. Those towns are also on the mountain.

While we were on the road we could see clouds are coming towards us, covers us and then go away. While you are walking on the road you may feel houses are one storied. Actually you are wrong, you are watching the top floor of the total building, and if you go down with stairs you will find there 3 or 4 more levels. Total town build on the mountain. Roads are going up and down like wave. Among them sometimes you will see narrow foot walk roads going upwards or downwards to a building.

At night if you look up you will see many stars on the sky. If you look down, you will also see many stars. Those are actually the lights of the houses on the body of the mountain. 

People who are with us agree, they had heard about this city many times, but couldn’t imagine the real beauty before they get in here.


[November 02, 2007]

Monday, August 3, 2015

একবার ভাবলাম (Once thought)

[English version has given below]

একবার ভাবলাম, প্রতিদিনের কিছু কাজ বাদ দিব, যেমন ব্লগ লিখা, ফেসবুকে স্টেটাস দেয়া, স্প্যাম মেইল চেক করে মুছে ফেলা, প্রতিটি মেইল চেক করা... ইত্যাদি.... কি দরকার? কয় কি লাভ? পরে ভাবলাম, মন্দ কি, আমি তো এমনি... অযথা নানা কাজ নিয়ে থাকি. বদলানোরই বা দরকার কি?

Once I thought, I should stop some unnecessary daily work. Like writing blog, giving status to Facebook, checking spam mail and delete, checking daily mails etc. What's the benefit? Then thought, what's wrong if I continue... It's me, who always keep busy with unnecessary work... So, why don't I just be myself? No need to change.