Friday, March 20, 2015

ক্যানডি, বিপদে আপনজন (Candy, sometimes play very important role)


[English version has given below]

অফিসে যখন সপ্তাহে একদিন ছুটি থাকলে যা হয়, সব কাজ ঐ একদিনে শেষ করতে হয়। আজ বাসা থেকে বের হয়েছি সকাল ১১ টায়, ফিরলাম সন্ধ্যা ৭ টায়। ৩ জায়গায় গেলাম, এক জায়গায় শুধু লাল চা খাওয়ালো। মনে মনে খুব ঠান্ডা পানি আশা করেছিলাম, দেয় নি (নাস্তা তো পরের কথা)। ছুটাছুটি করার সময় বেশ কয়েকবার মনে হয়েছে, কোনো খাবারের দোকানে ঢুকে খেয়ে নেই, আবার ভাবলাম, এতে দেরি হয়ে যাবে। ঠিকই ভেবেছি, আসলেই দেরি হয়ে যেত।
বাসা থেকে বের হবার সময়, কয়েকটা প্রান ম্যাংগো ক্যানডি নিয়েছিলাম (এই ক্যানডি ঘরে রাখার পিছনে ছোট ইতিহাস আছে, পরে জানাব) ভেবেছিলাম রাস্তায় ইচ্ছা হলে খাব।
শেষ পর্যন্ত সেটাই কাজে আসল, সাড়া দিন, ৫ টা ক্যানডি খেয়ে দিন কাটিয়ে দিলাম। খেয়েছি বাসে, রিক্সায় আর সি.এন.জি. তে বসে। বেশ ভালই, খেলে ক্ষুধা চলে যায়।


When you have only one day off in the week end, you have to complete all of your work in one day. Today I went out from home at 11 am and returned 7 pm. I went at 3 places; in only one place they offered me black tea. I was expecting some cold water too, but they didn't (So you can't think about snacks). Whole I had run one place from another... I thought many times I should go to any restaurant and have some food. Then again thought that will make me late. And I was right.

When I went out from home I took some Pran Mango Candy (This candy has another story... will tell you later). I thought I will take them if I felt so. And finally they help me to work whole day. I took total 5 candies. I took them in the bus, rickshaw and CNG auto rickshaw. They were good to reduce my hunger....

Post a Comment